পশ্চিমবঙ্গের ৫৯ শতাংশ মানুষ নাগরিকত্ব আইন চায় না

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:ভারতের রাজনীতি উত্তাল করে তোলা নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) এবং জাতীয় নাগরিক নিবন্ধনের (এনআরসি) পক্ষে নেই পশ্চিমবঙ্গের বেশির ভাগ মানুষ।
এবিপি আনন্দ এবং সিএনএক্সের এক যৌথ সমীক্ষায় দেখা গেছে, পশ্চিমবঙ্গের বেশির ভাগ মানুষ এখন সিএএ ও এনআরসি’কে সমর্থন করছে না। এমনকি সিএএ’র বিরুদ্ধে আন্দোলনে পশ্চিমবঙ্গের প্রায় ৫৯ শতাংশ মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সমর্থন করেন।

গত সপ্তাহের বুধ ও বৃহস্পতিবার অর্থ্যাৎ প্রধানমন্ত্রী মোদির কলকাতা সফর এবং তার প্রতিবাদে ভারতের রাজনীতি উত্তাল হওয়ার আগে রাজ্যের ২ হাজার ১৩৪ জন মানুষের ওপর এক যৌথ সমীক্ষা চালায় এবিপি আনন্দ এবং সিএনএক্স।

ওই সমীক্ষায় পশ্চিমবঙ্গের ৫৩ শতাংশ মানুষ মোদি সরকারের নাগরিকত্বের সংশোধনী আইন বা সিএএ’কে সমর্থন করে না। আর ৪৩ শতাংশ মানুষ সমর্থন করে। বাকি ৪ শতাংশ মানুষ এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি। নাগরিকত্ব আইনের যারা বিরোধী, তারা মনে করেন, আইনটি সংবিধানের মূল ধারার বিরোধী। তবে এই আইন বাতিলের আন্দোলনে বাসে-ট্রেনে আগুন লাগানোর মতো হিংসাত্মক আন্দোলনকে সমর্থন করে না ৬৮ শতাংশ মানুষ। সমর্থন করে মাত্র ৯ শতাংশ মানুষ।

অপর দিকে, ৫১ শতাংশ মানুষ মনে করেন এই আন্দোলনের ফলে রাজনৈতিক সুবিধা পাবে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল। ওই রাজ্যের ৫০ শতাংশ মানুষ মনে করেন ধর্মীয় বিভাজনের জন্যই মোদি সরকার নাগরিকত্ব আইন সংশোধন করেছে। আবার ৪৩ শতাংশের ধারণা, এতে লাভবান হবে বিজেপি। ৩০ শতাংশ এর উল্টোটা মনে করে। ৫৫ শতাংশ মানুষ জানিয়েছেন, তারা চান না দেশে নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) চালু হোক। অন্যদিকে এনআরসি চেয়েছেন।

সমীক্ষার ফলকে স্বাগত জানিয়েছেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন, এই সমীক্ষায় প্রমাণিত হয়ে গেছে আমাদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সঠিক পথে চলছেন। আমাদের নেত্রী আন্দোলনের সঠিক দিশা দিয়েছেন। আমাদের সমর্থনের হার দিনে দিনে আরো বাড়বে।

সূত্র: এবিপি আনন্দ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here