মুরগির আক্রমণে শিয়ালের মৃত্যু

4 views

ফ্রান্সের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের একটি স্কুলের খামারে কিছু মুরগি মিলে একটি ছোট শিয়ালকে মেরে ফেলেছে। শিয়ালটি একটি মুরগির খাঁচায় ঢুকে পড়লে দরজা তৎক্ষণাৎ বন্ধ হলে মুরগির আক্রমণে প্রাণ যায় শিয়ালটির। ফ্রান্সের ব্রিট্টানিতে অস্বাভাবিক এই ঘটনাটি ঘটেছে বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

বিবিসির প্রতিবেদন অনুযায়ী, সেই মুরগির খাঁচায় অন্তত ৩ হাজার মুরগী ছিল। কৃষি বিষয়ক স্কুল স-চেনের ফার্মিং-এর প্রধান প্যাসকেল ড্যানিয়েল বলেন, ‘এগুলো এদের সহজাত প্রবৃত্তি। তারা ঠোঁট দিয়ে শিয়ালটিকে আক্রমণ করে।’

ফ্রান্সভিত্তিক সংবাদ সংস্থা এএফপিকে প্যাসকেল ড্যানিয়েল বলেন, ‘শিয়ালটির ঘাড়ে মুরগির ঠোঁটের আঘাতের চিহ্ন ছিল। তা থেকে বোঝা যায় শিয়ালটি মুরগির আক্রমণের মুখে মারা গেছে। পরদিন খামারের এক কোণে শিয়ালটির লাশ পাওয়া যায়।’

পাঁচ একর জমির উপর করা সেই খামারে প্রায় ৬ হাজার মুরগিকে প্রাকৃতিক পরিবেশে পালন করা হয়। এএফপি প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, দিনের বেলায় খাঁচার দরজা খুলে রাখা হয় যাতে মুরগিগুলো বাইরে ঘুরে-ফিরে বেড়াতে পারে।

ধারণা করা হচ্ছে, সেসময়ই শিয়াল শাবকটি মুরগির খাঁচায় ঢুকে পরে। তারপর যখন স্বয়ংক্রিয় খাঁচাটি বন্ধ হয়ে যায়, তখন পাঁচ-ছয় মাসের এই শিয়াল শাবকটি ভেতরে আটকা পড়ে।

ফরাসী স্থানীয় সংবাদপত্র অয়েস্ট ফ্রান্সকে প্যাসকেল ড্যানিয়েল বলেন, ‘সম্ভবত এতোগুলো মুরগির আক্রমণে শিয়ালটি ভয় পেয়ে গিয়েছিল। মুরগিগুলো দলবদ্ধ অবস্থায় খুবই নাছোড়বান্দা হয়ে উঠতে পারে।’ আর এ কারণেই এমন ঘটনা ঘটেছে বলে জানান তিনি।