ইন্দোর টেস্টের প্রথমদিনেই অল আউট বাংলাদেশ

26

ক্রীড়া ডেস্ক:ইন্দোর টেস্টের প্রথমদিনেই অল আউট বাংলাদেশ। পুরো দল মিলে টিকতে পারলো না তিন সেশনও। ভারতের পেসারদের বোলিং তোপে মাত্র ১৫০ রানে গুটিয়ে গেছে টাইগারদের প্রথম ইনিংস।
সকালের প্রথম পর্বটাই শুধু সুখের ছিল বাংলাদেশের জন্য। টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। তবে এরপর আর কিছুই ছিল না বাংলাদেশের পক্ষে। অধিনায়কের সিদ্ধান্তের যথার্থতা প্রমাণ করতে ব্যর্থ টাইগার ব্যাটসম্যানরা।

দিনের শুরু থেকেই দারুণ বল করেন দুই ভারতীয় পেসার উমেশ যাদব ও ইশান্ত শর্মা। প্রথম দুই ওভারে কোনো রান দেননি তারা। ষষ্ঠ ওভারের শেষ বলে উমেশের বলে স্লিপে ক্যাচ তুলে দেন ইমরুল কায়েস। আজিংকা রাহানের ক্যাচটি লুফে নিতে তেমন অসুবিধা হয়নি। ১৮ বলে ছয় রান করেন কায়েস।

পরের ওভারেই ফেরেন আরেক ওপেনার সাদমান ইসলাম। ইশান্ত শর্মার বলে উইকেটকিপার সাহার হাতে ক্যাচ হয়ে ফেরেন তিনি। ২৪ বলের মোকাবেলায় সাদমানও করেন ছয় রান।

মোহাম্মদ মিথুন অবশ্য প্রতিরোধ গড়ার আভাস দিয়েছিলেন। তবে তাকে ব্যর্থ করলেন মোহাম্মদ শামি। লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ে ১৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন মিথুন। এর আগে ৩৬ বল মোকাবেলা করেন তিনি।

অধিনায়ক মুমিনুল হক প্রতিরোধের আশা দেখিয়ে ফিরেছেন অশ্বিনের মামুলি এক বলে। গুড লেন্থে পরা বলটি ছেড়ে দিলে তা সরাসরি স্ট্যাম্পে আঘাত হানে। ৮০ বলে ৩৭ রানের ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরেন মুমিনুল। এর কিছু পরেই ফেরেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। রবি অশ্বিনের বল সুইপ করতে গিয়ে বোল্ড হয়ে যান তিনি। এর আগে ৩০ বল মোকাবেলায় ১০ রান করতে পারেন তিনি।

দ্বিতীয় সেশনের শেষটা বেশি হতাশার ছিল বাংলাদেশের জন্য। শেষ দুই বলে মুশফিক আর মিরাজের আউটেই পুরোপুরি ব্যাকফুটে চলে যায় টাইগাররা। শামির বলে ৪৩ রানে বোল্ড হন মুশি। পরের বলেই লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন মিরাজ। তবে রিভিউ নিলে বেঁচে যেতে পাড়তেন তিনি।

চা বিরতি শেষে প্রথম বলেই ফেরেন লিটন দাস। কার্যত তার ফেরার সঙ্গে সঙ্গেই টাইগারদের বড় স্কোরের স্বপ্ন শেষ হয়ে যায়। টেল এন্ডাররা টেনেটুনে ১৫০-এ স্পর্শ করান রানের চাকা।

ভারতের হয়ে ৩ উইকেট নেন শামি। দুটি করে উইকেট শিকার করেন অশ্বিন, উমেশ যাদব ও ইশান্ত শর্মা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ ১৫০

মুশফিক ৪৩, মুমিনুল ৩৭

শামি ২৭/৩, ইশান্ত ২০/২

শেয়ার