অনিবন্ধিত সিম প্রতি জরিমানা ৫ হাজার টাকা

9 views

বার্তাবিডিডেস্ক নিউজ:

সিম বায়োমেট্রিক নিবন্ধন ছাড়া বিক্রি বা অসত্য তথ্য দিয়ে নিবন্ধন এবং প্রি-অ্যাক্টিভেটেড সিম বিক্রি করা হলে প্রতিটি সিম বা রিমের জন্য ৫ হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

দেশের সব মোবাইল ফোন অপারেটর প্রধানদের কাছে সোমবার বায়োমেট্রিক ভেরিফিকেশন সম্পর্কিত এ নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে।

বিটিআরসির সিস্টেমস অ্যান্ড সার্ভিসেস বিভাগের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ আজিজুর রহমান সিদ্দিকী স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে বলা হয়, টেলিফোন/মোবাইলে হুমকি, চাঁদা দাবি, ভয়ভীতি প্রদর্শন, উত্ত্যক্তকরণ প্রতিরোধে এবং সুশৃঙ্খল ও সুদক্ষ পরিচালনার জন্য লাইসেন্সের শর্ত পালনের মাধ্যমে সিম/রিম নিবন্ধন সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনে টেলিযোগাযোগ আইন-২০০১ এর বিধান অনুযায়ী নির্দেশনাবলি জারি করা হলো।

এতে বলা হয়েছে, বিটিআরসি দেশের প্রত্যেক মোবাইল/টেলিফোন সংযোগ গ্রহণের ক্ষেত্রে সব গ্রাহকের জন্য সিম/রিম বায়োমেট্রিক নিবন্ধন বাধ্যতামূলক করেছে।

কাজেই প্রত্যেক মোবাইল অপারেটর, সংশ্লিষ্ট টেলিযোগাযোগ অপারেটরকে তার গ্রাহকের সিম/রিম বায়োমেট্রিক নিবন্ধন সম্পন্ন করার ব্যবস্থা চালু রাখতে হবে। এই আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে বলেও চিঠিতে জানানো হয়েছে।

চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, বিটিআরসি-এর বায়োমেট্রিক ভেরিফিকেশন সিস্টেম সম্পর্কিত নির্দেশনা অনুযায়ী, প্রতি ক্ষেত্রে ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে কোন সিম রেজিস্ট্রেশন ছাড়া অ্যাক্টিভেশন রি-অ্যাক্টিভেশন ডি-অ্যাক্টিভেশন বা প্রতিস্থাপন বা মালিকানা পরিবর্তন করা যাবে না।

কোনো অবস্থাতেই অসত্য বা মিথ্যা তথ্য দিয়ে সিম বা রিম নিবন্ধন করা যাবে না এবং যথাযথ বায়োমেট্রিক নিবন্ধন ব্যতীত কোনো সিম বিক্রি করা যাবে না। তবে কারিগরি ত্রুটির কারণে ভেরিফিকেশন সম্পন্ন করা না গেলে গ্রাহককে প্রয়োজনীয় তথ্য সংরক্ষণ সাপেক্ষে নিষ্ক্রিয় সিম প্রদান করা যেতে পারে।

এক্ষেত্রে ওই সিম-রিম পরবর্তীতে যথাযথভাবে বায়োমেট্রিক ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হওয়ার পর অ্যাক্টিভিশন রি-অ্যাক্টিভেশন ডি-অ্যাক্টিভেশন প্রতিস্থাপন মালিকানা পরিবর্তন করা যেতে পারে।