ঢাকার রাজধানীতে সেরা উঁচু যে পাঁচ ভবন

53

ফিচার ডেস্ক:উচ্চতার দিক থেকে বিশ্বের সেরা ভবনগুলো মেঘ ফুঁড়ে ওপরে উঁকি দিলেও ঢাকার ভবনগুলো সে তুলনায় অনেক খাটো। এর মধ্যেও কোনো কোনোটি যেন ছুঁতে চেয়েছে আকাশটাকে। রাজধানীর সবচেয়ে উঁচু পাঁচটি ভবন নিয়ে এই আয়োজন-
সিটি সেন্টার, মতিঝিল

দেশের আকাশচুম্বী ভবনগুলোর মধ্যে সবচেয়ে উঁচু সিটি সেন্টার। ‘ছোঁবেন নাকি আকাশটাকে’ স্লোগান নিয়ে রাজধানীর মতিঝিলের দৈনিক বাংলা মোড়ে ৩৭ তলা এ ভবনটি নির্মাণ করেছে ওরিয়ন গ্রুপ। ৫৬১ ফুট উচ্চতার এই ভবনটির নির্মাণকাজ শুরু হয় ২০০৪ সালের ২১ সেপ্টেম্বর। শেষ হতে সময় লাগে প্রায় আট বছর। ২০১৩ সালের এপ্রিলে সবার জন্য এর দরজা খোলা হয়। ভবনটি বাণিজ্যিক ব্যবহারের জন্য নির্মিত। তবে জনসাধারণের প্রবেশে বাধা নেই। দৃষ্টিনন্দন কাচের বহির্দেয়ালের ভবনটিতে হেলিকপ্টার নামারও ব্যবস্থা আছে।

সিটি ব্যাংক টাওয়ার

এটি ঢাকার দ্বিতীয় বৃহত্তম লম্বা আকাশচুম্বী ভবনের তালিকায় রয়েছে। এটি রাজধানীর বাণিজ্যিক এলাকা মতিঝিল অবস্থিত। ৩৫৮.৬৯ ফুট উচ্চতার ভবনটিতে রয়েছে ৩৪টি তলা। সিটি ব্যাংকের সদর দফতর হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে ভবনটি।

বাংলাদেশে ব্যাংক

ঢাকার তৃতীয় আকাশচুম্বী ভবন হচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক ভবন। এটিও মতিঝিলে। পুরনো বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনের পাশেই তৈরি করা হয়েছে ভবনটি। উচ্চতা ১০১ মিটার বা ৩৩১ ফুট। ১৯৯৯ সালে নির্মিত ৩১ তলা ভবনটি ২০১২ সাল পর্যন্ত দেশের সর্বোচ্চ ভবনের মর্যাদায় ছিল। ভবনটির নকশা ও উন্নয়নকাজ করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক নিজেই।

ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয় ভবন

রাজধানীর মহাখালীতে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যালয় এই সুউচ্চ ভবনটির উচ্চতা ১০০ মিটার বা ৩২৮ ফুট। এটি ২৩ তলাবিশিষ্ট।

ডরিন টাওয়ার, ঢাকা

৯১ মিটার বা ৩০০ ফুট উচ্চতা নিয়ে রাজধানীর ডরিন টাওয়ার সুউচ্চ ভবনের তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছে। ২৫ তলাবিশিষ্ট ভবনটি রাজধানীর গুলশান-২-এ অবস্থিত। বাণিজ্যিক ভবনটি ১৯৯৮ সালে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অনুমোদন পেলেও নির্মাণে সময় লাগে প্রায় ১৫ বছর।

শেয়ার