চাঁদাবাজ, টেন্ডারবাজ ও সুবিধাভোগীদের কাছে টানবেন না: কাদের

10

রংপুর সংবাদদাতা: মঙ্গলবার দুপুরেআওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মাদক ব্যবসায়ী, সেবনকারী, চাঁদাবাজ, টেন্ডারবাজ ও সুবিধাভোগীদের কাছে টানবেন না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শুদ্ধি অভিযানকে সহায়তা করুন। বসন্তের কোকিলদের দলে টানবেন না। পরে তাদের বাতি জ্বালিয়েও খুঁজে পাবেন না। তাদের না বুলন।
রংপুর টাউন হলে মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, এক সময় অন্ধকারে ঢাকা ছিল রংপুর। উন্নয়ন বলতে কিছুই ছিল না। ছিল মঙ্গা। এখানকার মানুষ কষ্টে জীবনযাপন করতো। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে রংপুর অঞ্চল এখন আর মঙ্গা নেই। এখানকার মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নতি হয়েছে। শেখ হাসিনার সরকার মঙ্গাকে জাদুঘরে পাঠিয়েছে।

তিনি বলেন, বগুড়া থেকে চারলেনের সড়কের নির্মাণকাজ শুরু হয়েছে। রংপুর থেকে বুড়িমারী, রংপুর থেকে বাংলাবান্ধা পর্যন্ত চারলেন সড়কের নির্মাণকাজ কিছু দিনের মধ্যে শুরু হবে।

কাদের বলেন, আমরা দলে দূষিত রক্ত চাই না। ভালো রক্ত চাই। ফ্রেশ মুখদের দলে স্থান দিতে চাই। যারা ছাত্রলীগ করেছেন তাদের দলে পদ দিতে হবে। শেখ হাসিনা যতদিন আছেন ততদিন দেশের উন্নয়ন হবে।

সম্মেলনে দলের যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবীর নানক বলেন, অনুপ্রবেশকারীদের আওয়ামী লীগে ঢোকার কোনো সুযোগ নেই। সুবিধাবাদীদের দলে স্থান দিবেন না। দল ভারীর চেষ্টা করবেন না।

এর আগে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন।

জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মমতাজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবু তুষার কান্তি মণ্ডলের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি শাফিয়ার রহমান সাফি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজু, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহামুদ হাসান রিপন, স্থানীয় এমপি ডিউক চৌধুরী, আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ডা. কামিমা আহামেদ, কেন্দ্রীয় নেতা আব্দুর রহমান প্রমুখ।

শেয়ার