বগুড়ার আদমদীঘি ও সান্তাহারে চলছে দুর্গাপুজার উৎসব

38

মোঃ মনসুর আলী,আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি ঃ গত শনিবার থেকে সারাদেশের ন্যায় বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা সদর ও সান্তাহার শহরে শুরু হয়েছে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দূর্গাপূজা। এউপলক্ষে সকল দূর্গাপুজা মন্ডপগুলোতে আনন্দো ও উৎসব পরিবেশের মধ্যদিয়ে পুজা উৎযাপন করা হচ্ছে। দুর্গাপূজা উৎসবকে পরিপূর্ণ রূপ দিতে মন্দিরগুলোতে বর্নিল রুপে সাজানো হয়েছে পুজামন্ডপ। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত হিন্দু ধর্মাবলম্বী শিশু-কিশোর নারী পুরুষ মন্ডপে মন্ডপে ঘুরে প্রর্তিমা দেখছেন এবং পুজা উপভোগ করছেন। আজ সোমবার মহা নওমী। মঙ্গলবার বিজয়া দশমীর মধ্যদিয়ে শেষ হবে দুর্গাপুজা। ফলে পুজামন্ডপগুলোতে উপচেপরা ভির লক্ষকরা গাছে। এবার আদমদীঘি উপজেলা সদরও সান্তাহার পৌর শহরে সার্বজনীন ও ব্যক্তিগত মিলে ৫৮টি মন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। শান্তিপৃর্ণ পরিবেশে পুজা অনুষ্টানের জন্য প্রশাসনের পক্ষথেকে প্রতিটি পুজামন্ডপে আনসার ও পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সান্তাহার সদর পথ এলাকার শ্রী অরুন কুমার বলেন, ৫ দিনব্যাপী শার্রদীয় দূর্গাপূজাকে সামনে রেখে এলাকায় উৎসব মূখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। এতে প্রশাসনের সর্বাত্বক সহযোগীতায় এবার আনন্দঘন ও জাকজমকপূর্ণ ভাবে পূজা শেষ হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। শহরের পুরাতন বাজার এলকার ব্যাবসায়ী দুলাল জানান, দুর্গাপুজা উপলক্ষে আমাদের ধর্মাবলম্বীদের সকল শ্রেণী পেশার মানুষের মাঝে আনন্দ-উৎসব বিরাজ। আমাদের এই উৎসবকে পরিপুর্ণ রুপদিতে হিন্দু মুসলিম ও প্রশাসনের লোকজন এক সাথে কাজ করে থাকে। আদমদীঘি উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অশিত কুমার দেবনাথ বাপ্পা জানান, শান্তিপুর্ণ পরিবেশের মধ্যদিয়ে পুজা অনুষ্টিত হচ্ছে। কোথাও কোন অপ্রিতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি আশা করি এলকায় ওইরুকম ঘটনা ঘটার পরিবেশ নেই।
আদমদীঘি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দিন বলেন, হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারর্দীয় দূর্গা পূজা। প্রশাসনের পক্ষথেকে মন্দির গুলোতে নিরাপত্তাসহ শান্তিপূর্নভাবে এ উৎসব সম্পূর্ন করার লক্ষে আমাদের লোকজন মাঠে কাজ করছে। সান্তাহার টাউন পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মোঃ আনিসুর রহমান জানান, শহরের পুজা মন্ডপগুলোতে যেন কোন অপ্রতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য সতর্কতার সাথে কাজ করা হচ্ছে।

শেয়ার