মুকিম পরোকিয়ায় সর্বনাশ গৃহবধূর দায় নিবে কে ?

0

তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি
রাজশাহীর তানোরের কাঁমারগা ইউপির প্রত্যস্ত পল্লী হরিপুর মধ্যপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মুকবুল হোসেনের পুত্র মুকিম হোসেনের পরোকিয়ায় এবার এক গৃহবধূর ঘর তছনছ ভাঙ্গার উপক্রম হয়েছে। এদিকে মুকিমের পরোকিয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে ব্যাপক চাঞ্চল্য বইছে সমালোচনার ঝড় স্থানীয়রা মুকিমের দৃষ্টান্তমূলক দাবি করেছে। অন্যদিকে ঘটনা জানাজানি হবার পর চলতি বছরের ৭ সেপ্টেম্বর শনিবার ওই গৃহবধূ মুকিমের বিরুদ্ধে তানোর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। কিšত্ত অভিযোগ করার পর থেকেই মুকিম অভিযোগ তুলে নেয়ার জন্য বিভিন্ন ভাবে ওই গৃহবধুর পরিবারকে ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করছে এতে তারা পরিবার নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে। অথচ থানা পুলিশ রহস্যজনক কারণে নিরব ভূমিকা পালন করে চলেছে বলে ভিকটিম পরিবারের দাবী। গ্রামবাসি মুকিম পরোকিয়ার নাম দিয়েছে নয়া লাইলি নয়া মজনুর প্রেমকাহিনী কেউ কেউ বলছে পিরিতে মজিলে মন কিবা হাঁড়ি কিবা ডোম নইলে কি কেউ ঘরে সুন্দরী বউ রেখে প্রতিবেশীর স্ত্রীর সঙ্গে পরোকিয়ায় লিপ্ত হয়।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক প্রতিবেশী জানান, মুকিম হোসেন প্রতিবেশী এক গৃহবধূ এক সন্তানের জননীর সঙ্গে পরোকিয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। আর মুকিমের পরামর্শে ওই গৃহবধূ বাড়ির সবাইকে পানির সঙ্গে ঘুমের ওষুধ খাইয়ে বেহুশ করে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করেছে। চলতি বছরের ৬ সেপ্টেম্বর শুক্রবার মুকিমের পরামর্শে ওই গৃহবধু বাড়ির সবাইকে পানির সঙ্গে ঘুমের ওষুধ খাওয়াতে দিয়ে হাতে নাতে ধরা পড়ে। গ্রামবাসী আরো বলেন, মুকিম এক জন লম্পট প্রকৃতির লোক এর আগেও সে তার প্রথম স্ত্রীকে হত্যা করে আতœহত্যা বলে চালিয়ে দিয়েছে। আবার দ্বিতীয় স্ত্রী ঘরে রেখে প্রতিবেশির স্ত্রীর সঙ্গে পরোকিয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেছে। গ্রামবাসী মুকিমের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছে। এব্যাপারে জানতে চাইলে মুকিম হোসেন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তিনি ষড়যন্ত্রের শিকার। এব্যাপারে তানোর থানার দায়িত্বরত কর্মকর্তা এসআই মুকুল বলেন, অভিযোগ পাওয়া গেছে ততন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহল করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here