আফজাল হোসেন চাঁদ, ঝিকরগাছা :
যশোরের ঝিকরগাছায় মসজিদের তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংবাদকর্মীদের নামে থানায় মিথ্যা অভিযোগের ঘটনা ঘটেছে।
এই বিষয়ে ঝিকরগাছা রিপোর্টার্স ক্লাব সহ বিভিন্ন সাংবাদিক মহলের পক্ষ থেকে তিব্র নিন্দা জানিয়েছে।
তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়, গত শুক্রবার (৩১ মে) জুম্মার নামাজের পর উপজেলার ৭নং নাভারণ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের রঘুনাথপুর ডাঙ্গী গ্রামের মসজিদ কমিটির সভাপতি আব্দুল আউয়ালের নিকট মসজিদের বিগত কয়েক বছরের আয়-ব্যয় ও অনুদানের টাকার হিসাব দিতে বলেন।
এতে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। ওই ওয়ার্ডের সাবেক এক ইউ পি সদস্যের ইন্ধনে আব্দুল আউয়াল স্কুল শিক্ষক হাসানুজ্জা মানের উপর চড়াও হন।
এসময় সংবাদকর্মী ইসমাইল হোসেন ও আব্দুর রহমান বাবু ঠেকাতে গেলে আব্দুল আউয়াল তাদের উপর চড়াও হন এবং অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন।
উক্ত সময় তিনি বলেন, তোদের কাছে টাকার হিসাব দিতে পারবো না এই কথা বলে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।
এরপর সন্ধ্যাবেলায় ঝিকরগাছা থানায় উপস্থিত হয়ে নিজে বাদী হয়ে মিথ্যা বানোয়াট একটি অভিযোগটি করেন তিনি।
হঠাৎ করে শনিবার (০১লা জুন) দুপুরে দিকে থানার পুলিশ সাংবাদিক ইসমাইল হোসেন ও আব্দুর রহমান বাবুর বাড়িতে আসে।
তখন তারা জানতে পারেন আব্দুল আউয়াল উল্টো তাদের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা বানোয়াট অভিযোগ দায়ের করেছেন। আর অভিযোগে বিবাদী করা সংবাদকর্মীরা হয়েছে, ঢাকা থেকে প্রকাশিত জাতীয় দৈনিক মানব জমিন পত্রিকার ঝিক রগাছা উপজেলা প্রতিনিধি ও ঝিকরগাছা রিপোর্টার্স ক্লাবের উপদেষ্টা মো. ইসমাইল হোসেন এবং বার্তাকণ্ঠ পত্রি কার স্টাফ রিপোর্টার আব্দুর রহমান বাবু।
স্থানীয় সূত্রে আরও জানা যায়, আব্দুল আউয়াল ও তার সন্তানরা কথায় কথায় মানুষের উপর চড়াও হয়ে হুমকি-ধামকি দিয়েও খ্যান্ত হয় না। থানায় এসে মিথ্যা বানোয়াট অভিযোগ দিয়ে অসহায় মানুষদের হয়রানি করে বলে তথ্য পাওয়া গেছে।
দুই সংবাদকর্মীর বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা বানোয়াট অভিযো গের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন ঝিকরগাছা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আশরাফুজ্জামান বাবু, সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন চাদঁসহ ঝিকরগাছার কর্মরত সকল সাংবাদিকবৃন্দ।
ঘটনা সম্পর্কে মসজিদ কমিটির সভাপতি আব্দুল আউয়াল বলেন, তার সাথে দুর্ব্যবহার করা হয়েছে।
অভিযোগের বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিএম কামাল হোসেন ভূঁইয়া জানান, এ বিষয়ে আমার নিকট এক টা অভিযোগ এসেছে।
রবিবার সন্ধ্যার পর উভয় পক্ষকে থানায় উপস্থিত হয়ে মিমাং সার কথা ছিলো।
কিন্তু অভিযুক্তরা থানায় হাজির হলেও মূলত অভিযোগকারী থানায় হাজির হননি।
One thought on “ঝিকরগাছায় সংবাদকর্মীদের নামে থানায় মিথ্যা অভিযোগ ”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *