সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যে পর্যায়ক্রমে সকল স্থলবন্দরে ডিজিটাল সেবা কার্যক্রম চালু করা হবে। বাংলাদেশ স্থলব ন্দর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক ভোমরায় ডিজিটালাইজেশন কার্যক্রম উদ্বোধনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে উন্নত ও সমৃদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের প্রত্যয়ে স্থলবন্দরসমূহ আজ আরও একধাপ এগিয়ে গেল। উন্নত বিশে^র বন্দরের
ন্যায় আমাদের দেশের স্থল বন্দরসমূহ ও একদিন স্মার্ট বন্দ রে পরিণত হবে।

প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্মুদ চৌধুরী এমপি বৃহস্পতিবার (৪ জুলা ই) বেলা ১১টায় সাতক্ষীরার ভোমরা স্থল বন্দরে ভোম রা ই-পোর্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠা নে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের স্থল বন্দরের সেবা কার্যক্রম পেপার লেস করার লক্ষ্যে বেনাপোল ও বুড়িমারী স্থলবন্দরে আগেই অটোমেশন চালু করা হয়েছে। ভোমরা স্থলবন্দরের অবকা ঠামো উন্নয়নসহ ডিজিটাল সক্ষমতা বৃদ্ধি করা হচ্ছে।

স্থলবন্দরগুলোকে আধুনিক ও অটোমেশনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য সরকারি ও উন্নয়ন সহোযোগি সংস্থার অর্থায়নে প্রকল্প গ্রহণ করা হচ্ছে। গ্লোবাল এলায়েন্স ফর ট্রেড ফ্যাসি লিটেশন (জিএটিএফ) এর অর্থায়নে প্রায় ৯ (নয়) কোটি টাকা ব্যয়ে ভোমরা স্থলবন্দরে সম্পাদিত ডিজিটালাইজেশন কার্যক্রম প্রতিবেশী দেশের সাথে পণ্য সরবরাহ কার্যক্রম সচ ল রাখার ক্ষেত্রে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে।

খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি আরো বলেন, ই-পোর্ট ম্যানেজ মেন্ট সিস্টেম করা হয়েছে কাজ আরও স্মুথ করার জন্য।

যেন সময় বাঁচে। ভোমরা বন্দরের বিদ্যমান সমস্যাগুলো সবই সমাধান করা হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ভোমরা
বন্দরের উন্নয়নে ১১শ’ ৭০ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। এটা বাস্তবায়ন হলে আর কোনো সমস্যা থাকবে না। এটাই হবে প্রাণ কেন্দ্র, হিরো পোর্ট। ভোমরা বন্দর আপনাদে র। এটা দেখভাল করার দায়িত্ব আপনাদের।

এখানে কোন সংকট দেখা দিলে ব্যবসায়ীরা মুখ ফিরিয়ে নেবে। ইতিপূর্বে দেশের বন্দরগুলোতে কোনো শৃঙ্খলা ছিল না উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ২০ ০১ সালে শৃঙ্খলা ফেরানোর জন্য স্থলবন্দরকর্তৃপক্ষ গঠন করেন। যা ২৪ বছরে বন্দরের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। এখন কোথাও কোনো বিশৃঙ্খলা নেই।

বাংলাদেশ স্থল বন্দ কতৃপক্ষ এবং সুইসকন্টাক্ট বাংলাদেশ এর আয়োজনে ও স্থল বন্দর কতৃপক্ষের চেয়ারম্যান মোঃ জিল্লুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী সাত ক্ষীরা-৩ আসনের সংসদ সদস্য ডা. আফম রুহুল হক, সাত ক্ষীরা -২ আসনের সংসদ সদস্য আশরাফুজ্জামান আ শু, সংরক্ষিত আসনের নারী সংসদ সদস্য লাইলা পারভীন সেঁজু তি, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ূন কবির, পুলিশ সুপার মোঃ মতিউর রহমান সিদ্দিকী, গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ট্রেড ফ্যাসিলিটেশন(ভার্চুয়াল) এর পরিচালক ফিলিপ ইসলাম, সুইসকন্টাক্ট বাংলাদেশ এর কান্ট্রিডিরেক্টর মুজিবুল হাসান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মশিউর রহমান বাবু, ভোমরা সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি কাজী নওশাদ, সহসভাপতি এজাজ আহমেদ স্বপন,সাধারণ সম্পাদক এএসএম মাকসুদ খান প্রমুখ।

এসময় স্থল বন্দর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের আগে প্রধান অতিথি নৌ পরি বহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ভোমরা স্থল বন্দরে ই-পোর্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

One thought on “ভোমরা স্থলবন্দরের উন্নয়নে ১১শ’৭০ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে– নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী”
  1. ভোমরা স্থলবন্দরের উন্নয়নে ১১শ’৭০ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে– নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *