সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরা শহর উপকণ্ঠের রইচপুর গ্রামে তিনমাসের কন্যা শিশুকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যার অভিযোগে মা সুরাইয়া ইয়াস মিন মুক্তাকেগ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রোববার রাত ১১টার দিকে সাতক্ষীরা পৌরসভার রইচপুর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সুরাইয়া ইয়াসমিন (৩০) রইচপুর গ্রামের মুজাফফর হোসে নের মেয়ে ও খুলনার গিলাতলা এলাকার মুছা শেখের স্ত্রী।

তিনি বাবার বাড়িতেই এক ছেলে ও এক মেয়েকে নিয়ে থাক তেন। রইচপুর গ্রামের জাকির হোসেন জানান, সুরাইয়া ইয়া সমিনের শিশু কন্যা মমতাজ খাতুনকে রোববার বিকেল থেকে পাওয়া যাচ্ছিল না।

অনেক খোঁজাখুঁজির এক পর্যায়ে তার স্বজনরা রাত এগারটা র দিকে বাড়ির পুকুর থেকে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করে। এসময় শিশুটির মা সুরাইয়া খাতুনকে পানিতে ডুবিয়ে সন্তান হত্যার কথা স্বীকার করতে শোনা যায়। তিনি আরও জানান, সুরাইয়াকে মাঝে মাঝে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলতে দেখা যায়। এর আগে সে তার নিজের ছেলেকেও হত্যা করার চেষ্টা করেছিল।

বিষয়টি জানার পার সদর থানায় খবর দিলে উপপরিদর্শক মাজরিহা হোসাইন ঘটনাস্থলে এসে শিশুর মা সুরাইয়া ইয়াস মিন মুক্তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।

সাতক্ষীরা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহিদুল ইসলাম জানান, নিজ কন্যাকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যার অভি যোগে মানসিক ভারসাম্যহীন নারী সুরাইয়া খাতুন মুক্তাকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়াহয়েছে।

এঘটনায় শিশুটির বাবা মুছা শেখ এ ঘটনায় স্ত্রী সুরাইয়া খাতুন মুক্তাকে আসামী করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। শিশুটির মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে তিনি আরো জানান।

 

One thought on “শিশু সন্তানকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যার অভিযোগে মা গ্রেপ্তার”
  1. শিশু সন্তানকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যার অভিযোগে মা গ্রেপ্তার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *