নওগাঁ-৬ আসনের উপ-নির্বাচনে সরকারী দলের দেড় ডজন মনোনয়ন প্রত্যাশী

0

মামুন পারভেজ হিরা,নওগাঁ ঃ জাতীয় সংসদের ৫১ নওগাঁ-৬ (রাণীনগর-আত্রাই) আসনের উপ-নির্বাচনে সরকারী দলের দেড় ডজন মনোনয়ন প্রত্যাশীর নাম শোনা যাচ্ছে ভোটারদের মুখে মুখে। ইতিমধ্যেই তারা মাঠ পর্যায়ে প্রচারণা জমে তুলেছেন।গত ১৭ আগষ্ট থেকে তাদের অনেকেই দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।
এছাড়া বিএনপি ও জাতীয় পার্টি থেকেও মনোনয়ন প্রত্যাশীরা মাঠে রয়েছেন। কিন্তু এলাকায় সরকারী দলের প্রার্থী কে হচ্ছেন তা নিয়েই সর্বত্র চলছে আলোচনা সমালোচনা।

গত ২৭ জুলাই এ আসনের আওয়ামী লীগের নির্বাচিত এমপি ইসরাফিল আলম মারা গেলে আসনটি শুন্য হয়। এরপর থেকেই সরকার দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশীরা মাঠে নেমে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেন। পোস্টার ব্যানার লাগিয়ে ও বিভিন্ন কর্মীসভার আয়োজনের মাধ্যমে নেতা-কর্মীদের সাথে কুশল ও মত বিনিময় করছেন।

মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে আওয়ামী লীগ থেকে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তাদের মধ্যে রয়েছেন, প্রয়াত এমপি ইসরাফিল আলমের সহধর্মীনি সুলতানা পারভিন বিউটি, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো: নওশের আলী, নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও নাটোর-নওগাঁ সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাবেক এমপি শাহীন মনোয়ারা হক, রাণীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো: আনোয়ার হোসেন হেলাল, নওগাঁ জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ওমর ফারুক সুমন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম, রাণীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র উপদেষ্টা আলহাজ্ব আব্দুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আসাদুজ্জামান নূরুল, জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট পীযূষ কুমার সরকার, আত্রাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাহিদ ইসলাম বিপ্লব, বিশিষ্ট শিল্পপতি ও সমাজসেবক শেখ মো: রফিকুল ইসলাম, জেলা যুবলীগের সভাপতি খোদাদাদ খাঁন পিটু, সাধারণ সম্পাদক বিমান কুমার রায়, সাবেক ভিপি ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নাছিম আহমেদ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির আইন সদস্য ড. মো: জাহেদুল হক জাহিদ, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (অব:) ড: মো: ইউুনুস আলী প্রামানিক, মেজর (অব:) এসএম আবদুল জলিল, কালীগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইউনুছ আলী দুলাল প্রমুখ।
বিএনপি এই উপ-নির্বাচনে অংশ নেবে কিনা তা জানা না গেলেও মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসাবে মাঠে রয়েছেন জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম আহŸায়ক এছাহক আলী।

এছাড়া জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন রাণীনগর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি কাজী গোলাম কবির ও আত্রাই উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মো: মোফাজ্জল হোসেন।
উল্লেখ্য, এ আসনটি চারবার বিএনপির অধীনে থাকলেও ২০০৮ সালের পর থেকে আওয়ামী লীগের দখলে রয়েছে।

১৯৯১ ও ১৯৯৬ এর নির্বাচনে বিএনপি থেকে মনোনয়ন নিয়ে সাবেক গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী আলমগীর কবীর বিজয়ী হন। তার প্রতিদ্ব›দ্বী ছিলেন সাবেক এমপি মুক্তিযোদ্ধা ওহিদুর রহমান। ২০০১ এর নির্বাচনেও আলমগীর কবীর বিজয়ী হন। তার প্রতিদ্ব›দ্বী ছিলেন প্রয়াত ইসরাফিল আলম। ২০০৬ এর নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের শেষের দিকে আলমগীর কবির এলডিপিতে যোগ দেন এবং একই বছরে এলডিপি থেকে পদত্যাগ করেন।

২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়ে বিপুল ভোটে বিজয়ী হন সদ্য প্রয়াত ইসরাফিল আলম এমপি। তার প্রতিদ্ব›দ্বী ছিলেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী আলমগীর কবীরের ছোট ভাই বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বুলু। ২০১৪ এর দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্ব›দ্বীতায় এবং একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সাবেক প্রতিমন্ত্রী আলমগীর কবীরকে পরাজিত করে পূণরায় বিজয়ী হন ইসরাফিল আলম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here