সাতক্ষীরায় ফেসবুকে ছাত্রীর নগ্ন ছবি, বখাটে আটক

0

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা : সাতক্ষীরার তালায় ফেসবুকে ভূয়া নগ্ন ছবি ছড়িয়ে কলেজ ছাত্রী বিউটিকে আত্মহত্যায় প্ররোচিত করা বখাটে মৃত্যুঞ্জয় রায়কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯ টার দিকে তালা উপজেলার খেশরা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে তালা থানায় আপত্তিকর ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে আত্মহত্যার প্রচারণার অভিযোগে মামলা হয়েছে। যার মামলা নং ৪, তারিখ-৯/৯/২০।
গ্রেফতারকৃত বখাটে বখাটে মৃত্যুঞ্জয় রায় (২০) সাতক্ষীরার তালা উপজেলার কলাগাছি গ্রামের জগদীশ রায়ের ছেলে।

উল্লেখ্য, ফেসবুকে নগ্ন ছবি ছড়িয়ে দেয়ায় বিউটি মন্ডল (১৬) নামের এক কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। গত বুধবার দুপুরে নিজ ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে সে আত্মহত্যা করে। সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার কলাগাছি গ্রামের নিতাই মন্ডলের মেয়ে বিউটি মন্ডল এ বছর সফলতার সাথে মাধ্যমিকে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়।

বিউটি মন্ডলের কাকা দিপঙ্কর মন্ডল জানান, একই গ্রামের জগদীশ রায়’র ছেলে বখাটে মৃত্যুঞ্জয় রায় দীর্ঘদিন ধরে বিউটিকে উত্ত্যক্ত করাসহ কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল। বিউটি রাজি না হওয়ায় অশ্লিল ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয় লম্পট মৃত্যুঞ্জয়। গত ১ সপ্তাহ আগে অন্য মেয়ের নগ্ন ছবি এডিট করে তাতে বিউটির মুখ জুড়ে দিয়ে ছবিগুলো ফেসবুকের একাধিক আইডিতে ছড়িয়ে দেয় মৃত্যুঞ্জয়। বুধবার দুপুরে বিলে বিউটির বাবা ও মা ঘাঁস কাটতে যায়। এই সসময় ক্ষোভে, লজ্জায় বিউটি নিজ ঘরের মধ্যে গলাই ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। এ বিষয়ে গত রবিবার থানায় প্রাথমিক অভিযোগ দায়ের করে বিউটির পিতা। বিউটি মন্ডলের মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে লম্পট মৃত্যুঞ্জয় সহ তার পরিবারের লোকজন বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়।

এদিকে একটি বিবস্ত্র ছবির সাথে কিশোরী বিউটির ছবি জুড়ে ফেসবুকে ভূয়া আইডি খুলে ছড়িয়ে দেয়ার অপমানে আত্মহননকারি বিউটি র্মডলের মৃত্যূর সাথে জড়িত বখাটে যুবকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে শনিবার সকাল ১০ টায় দলুয়া বাজারে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে স্থানীয়রা। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মানবাধিকার নেতা মাধব দত্ত, শিক্ষক দিব্যেন্দু সরকার, শিক্ষক গাজী মোমিন উদ্দিনসহ স্থানীয় ছাত্রনেতা এবং বিউটির সহপাঠিরা।

তালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মেহেদী রাসেল জানান, আত্মহত্যায় প্ররোচিত করার অভিযোগে বখাটে মৃত্যুঞ্জয় রায়কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here