কমলগঞ্জে কিশোরীকে গণধর্ষণ ॥ গ্রেফতার ৩

0
294

বার্তাবিডি২৪.কম নিউজ( মৌলভিবাজার) ২৮ জুলাই ২০১৮,
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের পৌর এলাকায় এক কিশোরী (১৫) গনধষর্ণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত তিন যুবককে শুক্রবার রাতই পুলিশ আটক করেছে। কিশোরীর মা কমলগঞ্জ থানায় তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

ধর্ষণের শিকার মেয়েটি মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আটক ৩ যুবককে শনিবার দুপুরে কোটে প্রেরণ করা হয়েছে। মৌলভীবাজার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ও সহকারী পুলিশ সুপার(সার্কেল) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে ২৭ জুলাই সন্ধ্যায় ভানুগাছ বাজারে।
পুলিশ ও কিশোরীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের মৃত জাকির হোসেন পরিবার পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড ভানুগাছ বাজারের মকবুল আলী সড়কে ভাড়া বাসায় বসবাস করে। কিশোরী ও মা পারুল বেগম ঝি এর কাজ করে। প্রতিদিনের মতো একটি বাসায় কাজ শেষে শুক্রবার সন্ধ্যায় নিজ বাসায় যাচ্ছিলো। এসময় রাস্তায় এলাকার তিন বখাটে যুবক কিশোরীকে মুখচেপে জোরপূর্ব্বক সিএনজি অটোরিক্সায় তুলে একটি নির্জন স্থানে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে শুক্রবার রাতে পৌরসভা কার্যালয় সংলগ্ন ধানি জমিতে রক্তাক্ত অবস্তায় ফেলে যায়।
খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থানা পুলিশ শুক্রবার রাত ৯ টায় কিশোরীকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিশোরীর বক্তব্য অনুযায়ী এ ঘটনায় জড়িত তিন কিশোরকে শুক্রবার দিবাগত রাত ২ টায় তাদের বাড়ী থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আটককৃতরা হলেন- পশ্চিম বালিগাঁও গ্রামের আজাদ মিয়ার ছেলে বাবু মিয়া (১৮), বটতল গ্রামের আকরাম উল্যার ছেলে আব্দুল মুমিন (২০), ও সিএনজি চালক ধলাইপার গ্রামের আদিল চৌধুরীর ছেলে জাহিদ হাসান ওরপে সোহাগ মিয়া (১৯)। এ ঘটনায় ধর্ষিতা কিশোরীর মা পারুল বেগম শনিবার কমলগঞ্জ থানায় তিনজনের নাম উল্লেখ করে একটি ধর্ষন মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার খবর পেয়ে শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় মৌলভীবাজার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনোয়ারুল হক ও সহকারী পুলিশ সুপার(শ্রীমঙ্গলসার্কেল) আশফাকুজ্জান ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও আটকৃতদের থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করেন।
কমলগঞ্জ পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম মুগ্নী মুহিত জানান, ধর্ষিতা এই কিশোরী তার মায়ের সাথে পৌর এলাকার ভানুগাছ বাজারের মকবুল আলী সড়কের (ধানসিঁড়ি আবাসিক এলাকায়) রফিক মিয়ার কলোনীতে ভাড়া বাসায় থাকে। তারা খুবই দরিদ্র বলে অন্যের ঘরে ঝিয়ের কাজ করত।
কমলগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মোক্তাদির হোসেন পিপিএম তিন ধর্ষককে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, গ্রেফতারকৃত তিন ধর্ষককে শনিবার দুপুরে মৌলভীবাজার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। কিশোরীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।