রাজধানীর সঙ্গে যোগাযোগে বুলেট ট্রেনের ব্যবস্থা করা হবে–প্রধানমন্ত্রী

0
301
বিএনপি নির্বাচনে আসবেই প্রধানমন্ত্রী

বার্তাবিডি২৪.কমডেস্কনিউজ:২৮জুলাই২০১৮,
রাজধানীর সঙ্গে দেশের অন্যান্য বিভাগীয় শহরের যোগাযোগ ব্যবস্থা কীভাবে আরো উন্নত করা যায়, কীভাবে আরো সহজ করা যায় সেই লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, রাজধানীর সঙ্গে অন্যান্য বিভাগীয় শহরের যোগাযোগ সহজ করতে বুলেট ট্রেনের ব্যবস্থা করা হবে। যাতে করে খুব অল্প সময়ে লোকজন ঢাকায় আসতে পারেন আবার গন্তব্যে ফিরে যেতে পারেন।

শনিবার বিকেলে রাজধানীর হাতিরপুল ইউলুপ উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, যানজট নিরসনে ঢাকার চারপাশে বৃত্তাকারভাবে সড়ক-রেল ও নৌ যোগাযোগের ব্যবস্থা করা হবে।

রাজধানীর সঙ্গে আশপাশের শহরের যোগাযোগ সহজ করার জন্য সরকার নানা প্রকল্প হাতে নিয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, গাজীপুর, উত্তরা থেকে ২০ কিলোমিটার পথ ৩৮ মিনিটে পেরিয়ে যাত্রীদের মতিঝিলে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে মেট্রোরেল চালু করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এতে সাধারণ মানুষের জন্য ঢাকার বিভিন্ন এলাকার যাতায়াত আরও সহজ হবে। গাজীপুর থেকে শাহজালাল বিমানবন্দর পর্যন্ত বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট (বিআরটি) রুট চালু হলে টঙ্গী ও উত্তরার সঙ্গে ঢাকা মহানগরীর যাতায়াত সহজতর হবে বলে অনুষ্ঠানে জানান প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামাল ও গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।

এর আগে হাতিরঝিল সমন্বিত উন্নয়ন প্রকল্পের বাড্ডা প্রান্তের ইউ আকৃতির গাড়ি পারাপার সেতু (ইউলুপ) উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। উদ্বোধনের পর গাড়িতে স্থাপনাটি ঘুরে দেখেন প্রধানমন্ত্রী। এরপরই এটি যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়।

বাড্ডার এই ইউলুপটি চালু হওয়ার ফলে যানবাহনগুলো প্রগতি সরণি হয়ে ইউলুপ দিয়ে বাঁক নিয়ে বনশ্রী, আফতাবনগর, রামপুরা বা মালিবাগ অভিমুখে সহজেই যাতায়াত করতে পারবে। পাশাপাশি বাড্ডা পয়েন্টে সৃষ্ট ব্যাপক যানজটেরও নিরসন হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা। এর আগে ২০১৫ সালের মাঝামাঝিতে শুরু হওয়া বাড্ডা ইউলুপটির কাজ শুরু হয়েছিলো।