ইতিহাসের দ্বারপ্রান্তে ইংল্যান্ড

0
294

বার্তাবিডি ডেস্ক : ভারতের বিপক্ষে আসন্ন টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচেই ইতিহাসের পাতায় ঢুকে যাবে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। বিশ্বের ইতিহাসের প্রথম দল হিসেবে খেলবে ১০০০তম টেস্ট খেলার মাইলফলক স্পর্শ করবে কুলীনতম টেস্ট খেলুড়ে দেশটি।

১৮৭৭ সালে মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ খেলা ইংল্যান্ড এখনো পর্যন্ত খেলেছে ৯৯৯টি টেস্ট ম্যাচ। ১৪১ বছরের লম্বা এই ইতিহাসে জয়ের পাল্লাটা ইংল্যান্ডের পক্ষেই রয়েছে। ৯৯৯টি টেস্টের মধ্যে ইংল্যান্ড জিতেছে ৩৫৭ ম্যাচে, হেরেছে ২৯৭টিতে। অমীমাংসিত ছিল বাকি ৩৪৫টি ম্যাচ।

আগামী ১ আগস্ট ভারতের বিপক্ষে এজবাস্টন টেস্টের মধ্য দিয়েই এই রেকর্ড গড়বে ইংলিশরা। ইতিহাস গড়া এই ম্যাচের আগে ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা আইসিসির পক্ষে অভিনন্দন বার্তা পাঠানো হয়েছে ইংল্যান্ড দলের উদ্দেশ্যে। প্রথম দেশ হিসেবে ১০০০ টেস্টের মাইলফলক স্পর্শ করায় ইংলিশ ক্রিকেট দলকে অভিনন্দন জানানোর পাশাপাশি আগামীর জন্য শুভকামনাও জানিয়েছে আইসিসি।

সোমবার এক আনুষ্ঠানিক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহর জানান, ‘ক্রিকেট পরিবারের পক্ষ থেকে আমি ইংল্যান্ডের এই ঐতিহাসিক মুহূর্তে তাদের অভিনন্দন জানাতে চাই। বিশ্বের প্রথম দল হিসেবে এক হাজার টেস্ট খেলার মাইলফলক স্পর্শ করতে যাচ্ছে।’

তিনি আরও জানান, ‘ঐতিহাসিক এই ম্যাচে ইংল্যান্ডকে শুভকামনা জানাই। আশা করছি তারা ভবিষ্যতেও বিশ্বমানের খেলোয়াড় ও পারফরম্যান্স উপহার দেবে। যা কিনা টেস্ট ক্রিকেটকে অনুপ্রাণিত করবে। আশা করি ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে প্রাচীন ও চাহিদাবহুল এই ফরম্যাটের উন্নতিতে ইংল্যান্ড নিজেদের অবদান চলমান রাখবে।’

শুধু এটুকুতেই শেষ নয়। ইংলিশদের এই ঐতিহাসিক মুহূর্ত স্মরণীয় করে রাখতে ভিন্ন আয়োজনও আছে আইসিসির। সাবেক নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক ও আইসিসির এলিট প্যানেলের রেফারি জেফ ক্রো, ম্যাচের দিন ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান কলিন গ্রেবসের হাতে সম্মানসূচক ‘রৌপ্য ফলক’ তুলে দেবেন।