‘৩৩ বছরের রোনালদোকে ১০০ মিলিয়নে কিনতো না বায়ার্ন’

0
258

বার্তাবিডি ডেস্ক : ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাস ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে ১০০ মিলিয়ন ইউরোতে কিনেছে, ইতোমধ্যে জুভ শিবিরে যোগও দিয়ে দিয়েছেন পর্তুগিজ যুবরাজ। দলবদলের আগে সাবেক রিয়াল তারকার প্রতি আগ্রহ ছিল ইংলিশ ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখেরও। রোনালদো জুভেন্টাসে চলে যাওয়ায় কি তবে আফসোস হচ্ছে বায়ার্নের? ক্লাবটির প্রধান নির্বাহী কার্ল-হেইঞ্জ রুমিনেজের কথা শুনে অবশ্য তেমনটা মনে হচ্ছে না। ৩৩ বছর বয়সী একজন খেলোয়াড়কে বায়ার্ন এত টাকা দিয়ে কিনতো না বলেই জানিয়েছেন তিনি।

চলতি গ্রীষ্মের সবচেয়ে আলোচিত দলবদলই ছিল রোনালদোর। রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে দীর্ঘ ৯ বছরের সম্পর্কচ্ছেদ করে ইতালিতে গেছেন পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড। জুভেন্টাস তো তাকে পেয়ে ভীষণ খুশি।

তবে বায়ার্নের প্রধান নির্বাহী কার্ল-হেইঞ্জ রুমিনেজ মনে করছেন, জুভেন্টাস বেশি দামেই কিনে ফেলেছে রোনালদোকে। তিনি কিছুটা ব্যঙ্গ করেই বলেন, ‘আমরা বায়ার্ন মিউনিখে, ৩৩ বছর বয়সী একজনের পেছনে এত টাকা বিনিয়োগ করতাম না।’

রুমিনেজ অবশ্য কারণটাও বুঝতে পারছেন। তিনি বলেন, ‘এই চুক্তিটা এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি নজর কেড়েছে। আমি এর কারণও বুঝতে পারছি। এটা এমন একজন খেলোয়াড়কে নিয়ে, যে কিনা রিয়াল মাদ্রিদে গত কয়েক বছরে সব করেছে। পাঁচবার তিনি বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন, তাই সব মিলিয়ে তিনি একজন গ্রেট ফুটবলার। তারপরও আমি আন্দ্রে অ্যাগনেলির (জুভেন্টাসের মালিক) সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছি।’

ইতালিয়ান লিগকে বিশ্ব ফুটবলে প্রচারের আলোয় আনতেও রোনালদোর অন্তর্ভূক্তিটা কাজে আসবে মনে করছেন রুমিনেজ। তার ভাষায়, ‘ইতালিতে আগনেলি ভীষণ প্রশংসিত। জুভের দিক থেকে দেখলে এই দলবদলের একটা গুরুত্ব আছে। ইতালিয়ান ফুটবল সাম্প্রতিক সময়ে অবস্থান হারিয়েছে। বড় এই চুক্তির পর, তারা আবারও বিশ্ব ক্রিকেটের আলোতে আসবে।’