দিনাজপুরে হত্যার বদলে হত্যা, গ্রেফতার ২

0
295

বার্তাবিডি ২৪ নিউজ : দিনাজপুরের বীরগঞ্জে সুরুজ মিয়া (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগে রবিউল ইসলাম (৩২) নামে এক যুবককে গণপিটুনি দিয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় দুটি হত্যা মামলা করা হয়েছে।

এর মধ্যে একটি মামলা করেছেন নিহত সুরুজ আলীর বোন তারা বানু ও অপরটি করেছেন চৌকিদার অতুল দেব নাথ। দুটি মামলায় ৩০৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।

প্রথম মামলাটিতে নিহত সুরুজ আলীর বোন তারা বানু পাঁচজনকে আসামি করেছেন। আসামিরা হলেন- নিহত রবিউল ইসলামের বাবা তারা মিয়া, মা রওশনারা বেগম, ভাই রশিদুল ইসলাম, বোন সুলতানা বেগম ও ভগ্নিপতি রিয়াজ উদ্দিন।

তিনি মামলায় উল্লেখ করেছেন, তার ভাই সুরুজ আলীর হত্যাকারী রবিউল ইসলাম একজন ভারসাম্যহীন যুবক। তার ভাইকে হত্যার পর আরও দুইজনকে কুপিয়ে জখম করে রবিউল। এরপর রবিউল পালিয়ে যায়। তার পরিবারের লোকজন হত্যাকারীকে ধরিয়ে না দিয়ে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করে অপরাধ করেছেন। এ মামলায় রবিউল ইসলামের মা রওশনারা বেগম ও বোন সুলতানা বেগমকে গ্রেফতার দেখিয়ে শুক্রবার কোর্টে চালান দেয়া হয়েছে।

দ্বিতীয় মামলাটি করেছেন চৌকিদার অতুল দেব নাথ। এতে অজ্ঞাত ৩০০ গ্রামবাসীকে আসামি করা হয়েছে। রবিউল ইসলামকে ধরার পর পুলিশের কাছে সোপর্দ না করে গণপিটুনি দিয়ে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগে এ মামলা হয়।

বীরগঞ্জ থানা পুলিশের ওসি শাকিলা পারভীন দুটি হত্যা মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এখনো পরিষ্কার করে কিছু বলা যাচ্ছে না। কেন রবিউল ইসলাম বার বার এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

এর আগের হত্যাকাণ্ডগুলোর বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অভিযোগ না থাকায় এবং পলাতক থাকায় রবিউলকে আইনের আওতায় আনা যায়নি। তাকে মাদকাসক্ত হিসেবে আমরা জানি। তবে মামলা হলেও অহেতুক কোনো গ্রামবাসী যেন হয়রানি না হয় সেদিকে আমরা খেয়াল রাখব। অপর মামলায় দুইজনকে গ্রেফতার করে চালান দেয়া হয়েছে বলেও জানান ওসি।