শিক্ষকের পা কেটে দিলো সন্ত্রাসীরা

0
263

বার্তাবিডি ডেস্ক : পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সন্ত্রাসী হামলায় মো. শাহ্আলম (৫৫) নামে এক স্কুল শিক্ষক গুরুতর আহত হয়েছে।

শনিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের পশ্চিম সোনাতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় শিক্ষক শাহ্আলমকে কলাপাড়া হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

ঘটনার পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে একই গ্রামের মো. সাইদুর রহমান সাঈদ, তাইফুল ও হোসাইনকে গ্রেফতার করে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

পুলিশ জানায়, আহত মো. শাহ্আলম মাস্টার একই ইউনিয়নের সোনাতলার বোন জামাইয়ের বাড়ি থেকে দাওয়াত খেয়ে মোস্তফাপুর গ্রামে তার নিজ বাড়িতে যাচ্ছিল। এ সময় ওৎ পেতে থাকা প্রতিপক্ষরা তার ওপর হামলা চালায়। এ সময় ধারালো অস্ত্রের এলোপাথাড়ী আঘাতে তার বাম পা প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এছাড়া শরীরে বিভিন্ন স্থানে মারত্মক জমখ হয়। তিনি বরিশাল শের-ই বাংলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বলে জানা গেছে।

শাহ্আলম মাষ্টারের ভাই আবুল কালাম জানান, সকালে তার ভাই শাহ্আলম বোনের বাড়ি থেকে দাওয়াত খেয়ে বাড়ি ফিরছিল। পথিমধ্যে নজরুল, সাঈদসহ বেশ কয়েক জন সন্ত্রাসী তার ওপর হামলা চালায়।

কলাপাড়া থানার ওসি (তদন্ত) আলী আহম্মদ জানান, এ খবর শুনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কিছু আলামত ও ব্যবহৃত অস্ত্রসহ তিনজনকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে ওই গ্রামে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।