লারা-শচীনকে টপকে কোহলির দ্রুততম রানের রেকর্ড

0
200

বার্তাবিডি ডেস্ক : দলের অবস্থা যাই হোক, বিরাট কোহলির ব্যাটে রানের নহর বইবেই। এটা যেন অমোঘ সত্য কথা। ওভাল টেস্টে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ৪৯ রান করে আউট হয়ে যান ভারত অধিনায়ক। ১ রানের জন্য হয়তো হাফ সেঞ্চুরি করা হয়নি তার। তবে আক্ষেপ তার মোটেও হওয়ার কথা নয়। এই ৪৯ রানের মধ্য দিয়ে যে বিরল এক রেকর্ডে নাম লিখে ফেললেন ভারতের এই রান মেশিন!

ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে দ্রুততম ১৮ হাজার রান সংগ্রহকারীর তালিকায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তী ব্রায়ান লারাকে টপকে গেলেন বিরাট কোহলি। সবার শীর্ষে উঠে গেলেন তিনি। শচীন, লারাদের চেয়েও অনেক দ্রুততম সময়ের মধ্যে ১৮ হাজার রান সংগ্রহকারী হয়ে গেলেন কোহলি। টেস্ট, ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে কোহলির ক্যারিয়ারে এখন মোট রান হচ্ছে ১৮০২৮।

কেনিংটন ওভালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের পঞ্চম টেস্টের দ্বিতীয় দিনেই এই গৌরবের মঞ্চে নিজেকে তুলে আনেন বিরাট কোহলি। ১৮ হাজার রানের মাইলফলক ছুঁতে কোহলির লেগেছিল মোট ৩৮২ ইনিংস।

ক্যারিবীয় কিংবদন্তী ব্রায়ান লারার ১৮ হাজার রানের মাইলফলকে পৌঁছাতে লেগেছিল ৪১১ ইনিংস। যদিও তখন টি-টোয়েন্টি ছিল না। কোহলির আইডল, ভারতের আরেকজন কিংবদন্তী শচীন টেন্ডুলকারকেও পেছনে ফেললেন কোহলি। এতদিন তিনি ছিলেন দ্বিতীয় স্থানে। শচীনের লেগেছিল ৪১২ ইনিংস। এবার তিনি নেমে গেলেন তিন নম্বর স্থানে।

শুধু লারা-শচীনকে টপকে যাওয়াই নয়, কোহলি একই সঙ্গে ভিন্ন একটি রেকর্ডও গড়লেন। ১৮ হাজার রানের মাইলফলকে পৌঁছাতে তারা দু’জন টেস্ট এবং ওয়ানডে মিলিয়ে খেলেছিলেন যথাক্রমে ৪১১ ও ৪১২ ইনিংস। কোহলির আগে কেউ চারশ’র কম ইনিংসে এই মাইলফলক স্পর্শ করতে পারেননি। বিরাট কোহলিই পারলেন চারশ’র অনেক কম ইনিংসে এই মাইলস্টোন গড়তে।

ইতিমধ্যেই ইংল্যান্ডের কাছে সিরিজ হেরে বসেছে ভারত। ওভাল টেস্টেও রয়েছে বেকায়দা অবস্থায়। কিন্তু ভারত অধিনায়ক ঠিকই তার রানের মেশিন চালু রেখেছেন সর্বোচ্চ গতিতে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি সিরিজে এখনও পর্যন্ত ৯ ইনিংসে কোহলি রান করেছেন ৫৯৩। গড় ৬৫.৮৮। সেঞ্চুরি ২টি এবং হাফ সেঞ্চুরি ৩টি। তার পেছনে রয়েছেন ইংল্যান্ডের জস বাটলার। তিনি করেছেন ৮ ইনিংসে ৩৪৯ রান।

১৮ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেই ভারতের তিন সেরা ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার, সৌরভ গাঙ্গুলি এবং রাহুল দ্রাবিড়ের পাশে চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে নাম লেখালেন বিরাট কোহলি। বাকি তিনজনই ক্যারিয়ারে ১৮ হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করলেন। চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে তাদের সঙ্গে যোগ দিলেন বর্তমান ভারত অধিনায়ক।

৬৬৪ ম্যাচ খেলে শচীন টেন্ডুলকারের মোট রান সংখ্যা ৩৪৩৫৭। সেঞ্চুরি ১০০টি। ১৬৪টি রয়েছে হাফ সেঞ্চুরি। রাহুল দ্রাবিড় রয়েছেন দ্বিতীয় স্থানে। ৫০৯ ম্যাচে তার সংগ্রহ ২৪২০৮ রান। সেঞ্চুরি ৪৮টি এবং হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে ১৪৬টি।

ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি রয়েছেন তৃতীয় স্থানে। তার ব্যাটে সংগৃহীত মোট রানের সংখ্যা ১৮৫৭৫। ম্যাচ খেলেছেন ৪২৪টি। সেঞ্চুরি ৩৮টি এবং হাফ সেঞ্চুরি রয়েছে ১০৭টি। ৩৪৩ ম্যাচ খেলে বিরাট কোহলি ইতিমধ্যেই নামের পাশে লিখে ফেলেছেন ৫৮টি সেঞ্চুরি এবং ৮৫টি হাফ সেঞ্চুরি।