টাঙ্গাইলে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে প্রবাসীর স্ত্রীর মাথা ন্যাড়া

0
232

ফরিদ মিয়া, টাঙ্গাইল ঃ
টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে গত ৯ সেপ্টেম্বর ইচাইল গ্রামে ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে কাতার প্রবাসীর স্ত্রীর মাথার চুল কেটে ন্যাড়া করে দিয়েছে কয়েকজন বখাটে যুবক। এ ঘটনায় মির্জাপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়েরের পর ওই দিনই দুই জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতার কৃতরা হলো- উপজেলার ইচাইল গ্রামের মোঃ শামছুল ইসলামের ছেলে শরীফুল ইসলাম (২৮) ও বিল্লাল মিয়ার ছেলে শফিকুল ইসলাম (২৩)। এই দু’জন ছাড়াও আরও দু’জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে এ মামলায়।
মামলা সূত্রে জানা যায়,কাতার প্রবাসীর স্ত্রী তার ৫ বছরের মেয়েকে স্কুলে নিয়ে যাওয়া আসার পথে প্রতিনিয়তই তাকে উত্যক্ত করতো এলাকার কয়েকজন বখাটে। গত ৯ সেপ্টেম্বর রাতের খাবার খেয়ে মেয়েকে নিয়ে ঘরে ঘুমোতে যায় ওই গৃহবধূ। রাত ১১ টার দিকে অভিযুক্ত ও গ্রেফতারকৃত আসামীরা কৌশলে তার ঘরে ঢুকে তার মেয়ের গলায় ছুরি ধরে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। ডাক চিৎকার করলে মেয়েকে খুন করবে বলে হুমকি দেয়। এক পর্যায়ে তাকে ধর্ষণ করতে ব্যর্থ হলে অভিযুক্তরা তার হাত পা বেঁধে চুল কাটার মেশিন দিয়ে মাথা ন্যাড়া করে দেয়। এ ঘটনা প্রকাশ করলে তার সংসার টিকবেনা বলে হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরে মান সম্মানের ভয়ে তিনি খালার বাড়ি চলে যান। পরবর্তিতে খালার বাড়ির লোকজনের পরামর্শে ১৫ সেপ্টেম্বর মামলা করেন।

ভুক্তভোগী জানান, ওই বখাটেগুলো আমাকে দেখলেই খারাপ কথা বলতো। অনেক সময় কু-প্রস্তাব দিতো। বখাটেদের দেয়া প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় আমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে পরিকল্পিতভাবে আমার সংসার নষ্ট করে দেওয়ার জন্য এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে। আমি এর সুষ্ঠ বিচার চাই। যাতে এদের বিচার দেখে আর কেউ এমন খারাপ কাজ করতে সাহস না পায়।

এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃত আসামিসহ মোট চার জনের বিরুদ্ধে মির্জাপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন মামলার তদন্ত কারী কর্মকর্তা এস.আই সোহেল কুদ্দুস ।