অষ্টমবারের মতো রাজবাড়ীর পদ্মার তীররক্ষা বাঁধে ধস

0
292

রাজবাড়ী প্রতিনিধি : রাজবাড়ী সদর উপজেলার মিজানপুর ইউনিয়নের গোদার বাজার, চরধুনচী ও সোনাকান্দর এলাকায় শহর রক্ষার মূল বেড়িবাঁধ সংলগ্ন পদ্মার তীর প্রতিরক্ষা বাঁধে অষ্টমবারের মতো ধস দেখা দিয়েছে।

এ ভাঙনে নদীর তীর প্রতিরক্ষা বাঁধের ৮২৮ মিটার এলাকার প্রায় ১ লাখ ৪০ হাজার সিসি ব্লক ধসে গেছে। এছাড়া ভাঙন আতঙ্কে ওই এলাকার ৪০ থেকে ৫০টি বাড়ি অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে। বন্ধ রয়েছে চরধুনচী সরকারি প্রাথমকি বিদ্যালয়ের পাঠদান।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, নদীতে তীব্র স্রোত ও অপরিকল্পিতভাবে ড্রেজিং করায় তীর প্রতিরক্ষা বাঁধে এ ভাঙন শুরু হয়েছে। এভাবে ভাঙতে থাকলে শহর রক্ষকারী মূল বেড়িবাঁধ ছুয়ে ফেলবে নদী। কোথাও কোথাও নদী থেকে বেড়িবাঁধের দূরুত্ব এখন ৩০ থেকে ৪০ ফুটের মধ্যে। ভাঙন রোধে বালুর বস্তা ফেলা হচ্ছে কিন্তু তা প্রয়োজনের তুলনায় কম।

এদিকে রাজবাড়ী পাংশার হাবাসপুর, কালুখালীর রতনদিয়া, সদর উপজেলার মিজানপুর, গোয়ালন্দের ছোটভাকলা, দেবগ্রাম ও দৌলতদিয়ায় নদী ভাঙন অব্যাহত রয়েছে। ওইসব এলাকার ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে শুকনো খাবার ও ১০ কেজি করে চাল দেয়া হচ্ছে।

রাজবাড়ী সদর উপজেলার পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. হাফিজুর রহমান জানান, ভাঙন রোধে প্রতিটি স্থানে জরুরি ভিত্তিতে বালুভর্তি জিও ব্যাগ ফেলার কাজ করছেন তারা।