ঝিকরগাছায় ৩৫ বতল ফেন্সিডিল সহ মহিলা মাদক ব্যবসায়ী আটক

0
356

আফজাল হোসেন চাঁদ, ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধি ॥ যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার নাভারণ হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি নিত্যদিনের অভিযানের অংশে আবারও যোগ হল এক মহিলা মাদক ব্যবসায়ী মোছাঃ সালেহা বেগমের নাম। পুরুষের চেয়ে দিনেদিনে মহিলা মাদক ব্যবসায়ীর সংখ্যা ক্রমাগতই বাড়তে শুরু করেছে বলে এলাকার একাধিক সূত্রে জানা যাচ্ছে।
নাভারণ হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোপন সংবাদের উপর ভিত্তি করে মঙ্গলবার সকাল ১০টার সময় ঝিকরগাছা উপজেলার নাভারণ ইউনিয়নের অন্তগত কলাগাছিতে যশোর-বেনাপোল মহা সড়কের একটি যাত্রী বাহী বাস তল্লাশী করে বেনাপোল হইতে যশোরে নিয়ে যাওয়ার পথিমধ্যে বেনাপোল পোর্ট থানার দিঘীরপাড় গ্রামের শওকত আলীর মেয়ে মোছাঃ সালেহা বেগম (৩২) কে ৩৫ বতল ফেন্সিডিল সহ আটক করা হয়। এ সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন নাভারণ হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ সার্জেন্ট পলিটন মিয়া, এসআই হারুন অর রশিদ, এএসআই নুরে আলম, এটিএসআই আনোয়ার হোসেন সহ সঙ্গীয় ফোর্স। এই নিউজ লেখার পূর্বে মুহুত্বে ঝিকরগাছা থানায় তার বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য আইনে মামলা হওয়ার প্রস্তুতি চলছিল।

যশোর-বেনাপোল মহাসড়কে আধামৃত ঝুঁকিপূর্ণ গাছ কর্তনের জন্য ঝিকরগাছায় সংবাদ সম্মেলন


আফজাল হোসেন চাঁদ, ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধি ॥ স্বাধীন বাংলার ঐতিহ্যবাহী প্রথম ডিজিটাল জেলা যশোর। জেলার মধ্যবর্তী রয়েছে বেনাপোল স্থলবন্দর ও ফুলের রাজধানী গদখালীর উপর দিয়ে বহমান যশোর-বেনাপোল মহাসড়ক। আর এই সড়ক নিয়ে বিভিন্ন প্রিন্ট মিডিয়া, ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা সড়ক সংস্কার ও আধামৃত ঝুঁকিপূর্ণ গাছ কর্তনের জন্য প্রতিবেদন প্রকাশের উপর ভিত্তি করে সড়ক সংস্কার ও আধামৃত ঝুঁকিপূর্ণ গাছ কর্তনের উপর জাতীয় সংসদে সিদ্ধান্ত গৃহিত হলে একদল স্বার্থান্বেষী কুচক্রি মহল এর বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে ভালো ভাবে সড়ক সংস্কার ও আধামৃত ঝুঁকিপূর্ণ গাছ কর্তনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারী করায়। যার প্রতিবাদে মঙ্গলবার সকাল ১১টার সময় ঝিকরগাছার অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান সেবা সংগঠনের নিজেস্ব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান সেবা সংগঠনের সভাপতি মাষ্টার আশরাফুজ্জামান বাবু তার লিখিত বক্তব্যের মধ্যে তিনি বলেন, ১৮৪২ সালে জনৈক কালী পোদ্দার তার মায়ের তীর্থযাত্রা শান্তিময় ও ছাঁয়াময় করার জন্য যশোর হতে কলিকাতা পর্যন্ত তৎকালিন যশোর রোডের দু’পাশে কয়েক হাজার গাছ রোপন করেন। কালের পরিক্রমায় সেই গাছগুলোর অধিকাংশই মারা গেছে আর বর্তমানে যে অল্প সংখ্যক গাছ কালের স্বাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে সেগুলোও সব মৃতপ্রায়, ঝুঁকিপূর্ণ এবং এই জনপদের মানুষের জীবনের জন্য হুমকীস্বরূপ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ১৭৬ বছরের পুরানো এসব গাছ এখন কোন রকম ঝড় বৃষ্টি ছাড়াই কোথাও মোটা মোটা ডাল পালা আবার কোথাও সম্পূর্ন গাছ উপড়ে কিংবা ভেঙ্গে পড়ছে। যার ধারাবাহিকতাই চলতি বছরের ৬ জুন ঝিকরগাছা পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নিমাই চন্দ্র ঘোষের মাথায় শুকনো ডাল ভেঙ্গে পড়ে তিনি আহত হন। ৬ সেপ্টেম্বর যশোর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ ঝিকরগাছার সাবেক ডিজিএম এবং বর্তমানে কালিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির ডিজিএম আব্দুর রবের স্ত্রী ফাহমিদা বেগমের মাথায় শুকনো ডাল ভেঙ্গে পড়লে ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। ২৬ সেপ্টেম্বর ঝিকরগাছা উপজেলার নাভারণ ইউনিয়নে চারাতলায় ১টি গাছের মাঝখান বরাবর ভেঙ্গে যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের উপর পড়ে। যার কারণে যাত্রীদের চরম ভোগান্তী পোহাতে হয়। সর্বশেষ ৩০ সেপ্টেম্বর শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভপতি ও চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম মঞ্জুর বাসভবনের উপর একটি বড় ডাল ভেঙ্গে পড়ে ঘটনাস্থলে একজন মারা যায় এবং একজন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।
উক্ত সময় উপস্থিত ছিলেন, ঝিকরগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুছা মাহমুদ, জাসদের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা রশিদুর রহমান রশিদ, পল্লী বিদ্যুৎ এর সাবেক ডাইরেক্টর তৌফিকুল ইসলাম স্বপন, সেবা সংগঠনের সহ সভাপতি আব্দুর রহিম মৃধা, যুগ্ম সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক শাহ আলম মিন্টু, দপ্তর সম্পাদক আফজাল হোসেন চাঁদ, প্রচার সম্পাদক শাকিল আহমেদ মিলন, সদস্য রফিকুল ইসলাম রফিক, হাফিজুর রহমান, জাকির হোসেন, আশিকুল ইসলাম সহ অন্যান্য সদস্যবৃন্দ, ঝিকরগাছা প্রেসক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দ, ঝিকরগাছা বাজারের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ এবং সমাজের সকল স্তরের জনগণ।
সংবাদ সম্মেলনে আলোচ্য বিষয়ের উপর আধামৃত বা ঝুঁকিপূর্ণ গাছগুলো কর্তনের জন্য কর্তৃপক্ষকে ৭ দিন সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। অন্যথায় পরবর্তীতে আরও কঠোর কর্মসূচি দেবার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হবে।