খুলনায় এসএসসি পরীক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু

0
207

বি এম রাকিব হাসান,খুলনা ব্যুরো:
খুলনায় মিথুন মন্ডল নামে এসএসসি পরীক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার সকাল ১০টার দিকে জেলার বটিয়াঘাটা উপজেলার তেঁতুলতলা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত মিথুন তেতুলতলার ১০ নং গেট এলাকার মৃত প্রশান্ত মন্ডলের ছেলে।
মিথুনের মা প্রণীতা মন্ডলের দাবি পিতৃহীন মিথুনের সম্পত্তির লোভে মিথুনের চাচা জয়দেব মন্ডল অত্যাচার নির্যাতন করে তাকে মেরে ঘরের পাশের একটি তেঁতুল গাছে ঝুলিয়ে রেখেছে। মিথুনের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। অপরদিকে পুলিশ বলছে, মিথুন আত্মহত্যা করেছে।
বটিয়াঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবুর রহমান বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে মিথুন আত্মহত্যা করেছে। মিথুনের মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

খুলনায় বোমাসহ বিএনপি-জামায়াতের ৬ নেতাকর্মী আটক

খুলনা ব্যুরো:

খুলনায় হাতে তৈরি বোমা, হাতুড়ি ও রডসহ বিএনপি-জামায়াতের ৬ নেতা-কর্মীকে আটক করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে দিঘলিয়া উপজেলা নির্বাচন অফিসের সামনে থেকে তাদের আটক করা হয়। আটকরা হলেন, এরশাদ আলী খান (৩৩), নোয়াব আলী (৩৫), আসাদ শেখ (৩২), হাসিবুর রহমান (২২), রফিকুল ইসলাম (৪৫) ও আলমগীর হোসেন (৩৫)। এদের মধ্যে আলমগীর হোসেন জামায়াত ও বাকি পাঁচজন বিএনপির স্থানীয় নেতাকর্মী।
দিঘলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মানস রঞ্জন দাস বলেন, মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীরা নাশকতা সৃষ্টির জন্য দিঘলিয়া উপজেলা নির্বাচন অফিসের সামনে জড়ো হয়। পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে উপস্থিত হলে তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। এক পর্যায়ে পুলিশ ৫ রাউন্ড শটগানের গুলি ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৪টি হাত বোমা, ২টি রামদা ও হাতুড়িসহ ওই ৬ জনকে আটক করে। বাকিরা পালিয়ে যায়।
এ ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইন ও বিস্ফোরকদ্রব্য আইনে ৬৮ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও অনেক ব্যক্তির নামে দিঘলিয়া থানায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান ওসি।

খুলনায় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহের উদ্বোধন

খুলনা ব্যুরো:
খুলনা সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে মহানগরীতে জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ (০১-০৭ অক্টোবর) ২০১৮ পালিত হচ্ছে। সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক গতকাল বুধবার সকালে খুলনা কলেজিয়েট গার্লস স্কুল ও কেসিসি উইমেন্স কলেজে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে একটি শিশুকে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানোর মধ্য দিয়ে মহানগরীতে আনুষ্ঠানিকভাবে কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহের উদ্বোধন করেন।
কেসিসি’র কাউন্সিলর ফকির মোঃ সাইফুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন কেসিসি’র কাউন্সিলর মোঃ আলী আকবর টিপু, শেখ মোহাম্মদ আলী, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মনিরা আক্তার, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্ম সচিব) পলাশ কান্তি বালা ও স্বাস্থ্য বিভাগ-খুলনার সহকারী পরিচালক ডা. সৈয়দ জাহাঙ্গীর হোসেন। স্বাগত বক্তৃতা করেন কেসিসি’র প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. একেএম আব্দুল্লাহ
উল্লেখ্য, মহানগরীর ৪৯৮টি প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৫ থেকে ১২ বছর বয়সী ৯৩ হাজার ৮’শ ৭২ জন এবং ৯৩ টি মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১২ থেকে ১৬ বছর বয়সী ৫৫ হাজার ৮’শ ৯৮জন শিক্ষার্থীকে ১টি করে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এছাড়া অনুষ্ঠানে ক্ষুদে ডাক্তার কর্তৃক শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা কার্যক্রমও পরিচালনা করা হয়।