ঠাকুরগাঁওয়ে গ্রেফতার আতঙ্কে ছয় শতাধিক পরিবার

0
19

রহমত আরিফ ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতাঃ ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈল উপজেলার বাচোর ইউনিয়নের ভাংবাড়ি ভিএফ নিম্নমাধ্যমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে নির্বাচনী সহিংসতার ঘটনায় তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও দুই সহকারী পুলিশ উপপরিদর্শক (এএসআই) বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এতে অজ্ঞাতনামা সাড়ে ছয় শতাধিক জনের নামে মামলা করা হয়েছে। আর অজ্ঞাতনামা মামলায় গ্রেফতার আতঙ্কে রয়েছে ওই এলাকার পরিবারগুলো। অধিকাংশ পুরুষেরা ছেড়েছেন ঘরবাড়ি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মামলার কথা শুনে বাড়ি ছেড়েছে অনেক পুরুষ। গ্রেফতার আতঙ্কে সময় পার করছে বাড়ির নারী ও শিশুরা। বাড়িতে কিছু সময়ের জন্য আসলেও একটু পরে বাড়ি ছাড়ছেন পুরুষেরা। অজ্ঞাতনামা মামলার কথা শুনে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে গ্রামগুলোতে।

মীরডাঙ্গী গ্রামের বাসিন্দা মনসুরা বেগম বলেন, আমরা শুনেছি যে মামলা হয়েছে। তাও আবার সাতশো আটশো মানুষের নামে। যেহেতু নাম উল্লেখ্য করে মামলা হয়নি সে কারণে ভয়ে সময় পার করছি আমরা। বাবুর বাবাকে আমি বাড়িতে থাকতে দেই না। বলা যায় না কাকে কখন তুলে নিয়ে যায়।

আরেক বাসিন্দা সুরাইয়া আক্তার বলেন, আমার ছোট তিনটা বাচ্চা। মামলা আর গ্রেফতারের ভয়ে স্বামী বাড়িতে থাকছেন না। আমরা নির্বাচনের ঘটনার দিন ছিলাম না। ভোট দিয়ে আমরা চলে এসেছি। এর পরের ঘটনা আমরা জানি না। এখন মামলা হয়ছে অনেক জনের নামে। এ নিয়ে আমরা ভয়ে আছি।

স্থানীয় বাসিন্দা রফিকুল বলেন, আমরা দিনমজুর মানুষ। দিন এনে দিন খাই। একদিন কাজ না করলে না খেয়ে থাকতে হয়। এখন অনেকজনের নামে অজ্ঞাতনামা মামলা হয়েছে। আমি নিজেই অনেক ভয় আছি। কাকে কখন তুলে নিয়ে যায়। আমরা এর সুষ্ঠু সমাধান চাই।