শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় কে জি মোস্তফাকে শেষ বিদায়

0
8

ডেস্ক নিউজঃ  গীতিকার, কবি ও সাংবাদিক কে জি মোস্তফাকে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়েছে সংবাদকর্মীসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ।

‘তোমারে লেগেছে এতো যে ভালো চাঁদ বুঝি তা জানে’, ‘আয়নাতে ওই মুখ দেখবে যখন’ এর মতো গানের এই গীতিকারের মরদেহ সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে নিয়ে আসা হয়।

সেখানে তার কফিনে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন প্রেস ক্লাবের সিনিয়র সহসভাপতি হাসান হাফিজ, সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান, যুগ্ম সম্পাদক মাইনুল আলম ও আশরাফ আলী, কোষাধ্যক্ষ সাহেদ চৌধুরীসহ অন্যরা।

এরপর বিএফইউজে, ডিইউজে, পিআইবি, কবিতাপত্র, নোয়াখালী সাংবাদিক ফোরামসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষও থেকে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

রোববার রাতে আজিমপুরের বাসায় অসুস্থ হয়ে পড়লে কে জি মোস্তফাকে শহীদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

সোমবার দুপুরে প্রেস ক্লাবে তার কফিনে শ্রদ্ধা জানানোর আগে জানাজায় অংশ নেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ডা. জাফরুল¬াহ চৌধুরী, সাংবাদিক এরশাদ মজুমদার, আলমগীর মহিউদ্দিন, মোস্তফা কামাল মজুমদার, আবদুর রহমান খান, জাকারিয়া কাজল, আবদুল জলিল ভুইয়া, কামরুল ইসলাম চৌধুরী, বিএফইউজের দুই অংশের ওমর ফারুক, এম আবদুল¬াহ, নুরুল আমিন রোকন, খায়রুজ্জামান কামালসহ অনেকে।

জাতীয় প্রেসক্লাবের একটি থিম সং আছে- ‘প্রেসক্লাব আমার সেকেন্ড হোম..’। এই গানেরও রচয়িতা কে জি মোস্তফা।
প্রেস ক্লাবে শ্রদ্ধা নিবেদন পর্ব শেষে বেলা আড়াইটায় আজিমপুর কবরস্থানে কে জি মোস্তফাকে দাফন করা হয় বলে তার ছোট ছেলে খন্দকার রউফুল হাসান জানান।