রাজশাহীতে আম পাড়ার নির্দেশনা প্রশাসনের

0
6

তারেক মাহমুদ, রাজশাহী : রাজশাহীতে গাছ থেকে আম নামানো শুরু হচ্ছে চলতি মাসের ১৩ তারিখ থেকে।

গত বৃহস্পতিবার বিকেলে কোন জাতের আম কবে পাড়া যাবে তা নির্ধারন করেছে জেলা প্রশাসন।

জেলা প্রশাসনের নির্দেশনানুসারে, ১৩ মে থেকে শুরু হয়ে মৌসুম চলবে ২০ আগষ্ট পর্যন্ত।

গুটি আম ১৩ মে, গোপাল ভোগ ২০ মে, লক্ষণভোগ ও রানীপছন্দ ২৫ মে, হিমসাগর বা খিরসাপাত ২৮ মে, ল্যাংড়া ৬ জুন, আম্রপালি ও ফজলি ১৫ জুন, আশ্বিনা ও বারি-৪ আম ১০ জুলাই, গোলমতী ১৫ জুলাই, ইলমতি জাতের আম ২০ আগস্ট গাছ থেকে পাড়া যাবে ।

জেলা প্রশাসন জানিয়েছে,নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

কেউ যাতে অপোক্ত আম বাজারজাত করতে না পারে সে বিষয়ে পুলিশ ও আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী খেয়াল রাখবে।

এদিকে প্রশাসনে নিধারিত তারিখের আগে বৃহস্পতিবার (১২ মে) দুপেুরে রাজশাহীর বানেশ্বরে গুটি জাতের আমের দেখা মিলেছে।

রাজশাহী চারঘাট, বাঘা,পুঠিয়া ,দুর্গাপুর উপজেলা থেকে হাটে এই আম গুলো নিয়েছে চাষীরা।

দুপুরে গিয়ে দেখা যায়, চারটি ভ্যানে মোট আটটি টুকরি ও দুইটি ভ্যানে আট টুকরি করে সাজানো রয়েছে। দুইটি ভ্যানে কাঁচা আমের সাথে কিছু পাঁকা আম রয়েছে। পাইকার ও চাষীদের চলছে দাম কশাকশি।

রাজশাহীর দুর্গাপুর থেকে গুটি জাতের আম নিয়ে এসেছেন হাবিবুর রহমান তিনি জানান, আমার কাছে যে গুটি জাতের আম রয়েছে খুব রসালো ও মিষ্টি তাই দামও বেশি আমি ১৬ শ টাকা মণ করে চাচ্ছি।

পাইকাররা দাম করছে এখনো বিক্রি হয়নি। কয়েকজন ১২ শ টাকা মণ পযন্ত বলেছে।

পুঠিয়া থেকে আম নিয়ে এসেছেন আনোয়ার হোসেন তিনি বলেন, আমি মোট চার টুকরিতে এক ভ্যান আম নিয়ে এসেছি। গুলোতে গুটি জাতের আম।

গাছে দুই একটা পাঁকতে শুরু করেছে। হালকা মিষ্টি তাই এক হাজার টাকা মণ চাচ্ছি।

পাইকারি ক্রেতা রবিউল ইসলাম জানান, সকাল থেকেই কিছু গুটি জাতের আম বানেশ্বর হাটে এসেছে। এর মধ্যে ভালো মানের আম খাওয়ার জন্য ভালো দামে বিক্রি হচ্ছে।

আর আঁচারের জন্য টক আম গুলো কম দামে বিক্রি হচ্ছে। আজ  সর্বোচ্চ ১৭ শ টাকা আর সর্বনিন্ম ৬০০ টাকা মণে আম বিক্রি হচ্ছে।

রাজশাহী অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব), মুহাম্মদ শরিফুল হক জানান, আগামীকাল থেকে গুটি জাতের আম গুলো নামানো শুরু হবে।

আর মে, জুন জুলাই ও আগস্ট সবশেষ যে জাতের আম তা আগস্টের দিকে গাছ থেকে নামানো হবে। বাজার মনিটরিং এ মাঠে থাকবে প্রশাসন।