ট্রলারডুবিতে প্রান গেল  ১২ জনের

0

নেত্রকোনা প্রতিনিধি:নেত্রকোনার কলমাকান্দায় গুমাই নদীতে ট্রলারডুবির ঘটনায় রতন মিয়া (৩৫) ও মনিরা (৫)সহ মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১২ জনে।এদের মরদেহ উদ্ধার করেছেন স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ।

মনিরা ট্রলারডুবির ঘটনায় দায়ের করা মামলার বাদী ওহাব আলীর মেয়ে। আজ শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে ও দুপুর আড়াইটায় সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার পৃথক স্থান থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এদিকে ট্রলারডুবির ঘটনায় বৃহস্পতিবার ছয় জনকে আসামি করে কলমাকান্দা থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ট্রলারডুবিতে মারা যাওয়া সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশার ইনাতনগর গ্রামের লুৎফুন্নাহারের স্বামী ও মনিরার বাবা আব্দুল ওয়াহাব বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন। পরে বাল্কহেডের চালক আবদুল, লস্কর বাপন মিয়া, জাফর আলী, বাবুর্চি বাদল, সুকানি সোহাগ মিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তাদের সবার বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুর উপজেলার পাটুলি গ্রামে।

এদিকে ট্রলার চালক সোহাগ মিয়াকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানায় পুলিশ।

কলমাকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাজহারুল করিম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘আমাদের কাছে ট্রলারডুবিতে সর্বশেষ দুই জন নিখোঁজ রয়েছে এমন তথ্য ছিল। এই দুই জনেরই লাশ উদ্ধার করা হলো।’

বুধবার সকালে কলমাকান্দা উপজেলার রাজানগর এলাকার গোমাই নদীতে বাল্কহেডের ধাক্কায় যাত্রীবাহী ট্রলার ডুবে ১০ জন মারা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here