Sunday, May 9, 2021
Home Blog Page 2

৫শ’ শিশুর মুখে হাসি ফুটালেন ছাত্রলীগ সভাপতি বাঁধন

0

আলী আক্কাছ,গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.
নাটোরের গুরুদাসপুরে সুবিধাবঞ্চিত পাঁচ শতাধিক দুস্থ ও প্রতিবন্ধী শিশুকে ঈদের নতুন জামা কাপড় উপহার দিয়েছেন উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. আতিয়ার রহমান বাঁধন। ঈদুল ফিতর উদযাপন উপলক্ষে উপজেলায় এই প্রথম শিশুদের মাঝে ব্যক্তি উদ্যোগে প্রায় ৪ লাখ টাকার শিশু বস্ত্র বিতরণ করা হয়।

রবিবার দুপুর ১২টার দিকে পৌর সদরের চাঁচকৈড় শিক্ষাসংঘ প্রাইমারী স্কুল মাঠে উৎসবমুখর পরিবেশে এলাকার অভাবক্লিষ্ট শিশুদের মাঝে ওই নতুন কাপড় উপহার দেওয়ার সময় বাঁধনের বাবা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আমানত আলী শেখসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন। করোনাকালীন সংকটে এ মহৎ উদ্যোগ নেওয়ায় উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি বাঁধন বিভিন্ন মহল থেকে প্রশংসিত হয়েছেন। শিশুদের নতুন পোষাকের মধ্যে ছিলো পায়জামা-পাঞ্জাবী, শার্ট-প্যান্ট, ফ্রগ, কামিজ, লেহেঙ্গা ইত্যাদি।

নতুন পোষাক পেয়ে শিশু তানিম, সামিউল ও রেহানা জানায়, তারা নতুন পোষাক পেয়ে খুব খুশি। শিশুদের অভিভাকরা অনুভূতি ব্যক্ত করে বলেন, আমরা ওদের নতুন পোষাক দিতে পারিনি। আল্লাহ বাঁধনকে বাঁচিয়ে রাখুক।

বাঁধন বলেন, অসহায় দুস্থ ও প্রতিবন্ধী শিশুদের সাথে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করার নিমিত্তে এই আয়োজন। এতে সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা নতুন জামা কাপড় পেয়ে খুশিতে উজ্জীবিত হয়েছে। সাথে আসা অভিভাবকরাও খুশি হয়েছেন। তাদের খুশিতেই নিজেকে ফিরে পাই।#

 

ঠাকুরগাঁওয়ে ঈদ-উল- ফিতর উপলক্ষে ভিজিএফ আর্থিক সহায়তা উদ্বোধন নির্বাহী অফিসার আব্দুল্লাহ-আল-মামুন

0

রহমত আরিফ ঠাকুরগাঁও সংবাদদাতাঃ ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা সালন্দর ইউনিয়নে অসহায় দরিদ্র মানুষের মাঝে নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়েছে। পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে প্রধান মন্ত্রীর ত্রান তহবিল থেকে এ সহয়তা প্রদান করা হয়। সালনন্দর ইউনিয়ন এলাকার এসব অসহায় দরিদ্রদের প্রত্যেককে ৪৫০ টাকা করে নগদ অর্থ দেওয়া হয়।

রবিবার সকাল ১০ টার সময় সালন্দরন ইউনিয়নে ৯ টি ওয়ার্ডের ১৮৯০ জনকে ৪৫০ টাকা করে মোট ৮৫০৫০০ টাকা বিতরণ করা হয়। স্বাস্থ্যবিধি মেনে লাইন দিয়ে সকলকে এ অর্থ বিতরণ করে।
সালন্দর ৫ নং দিঘিরপাড় ওয়ার্ডের আছিয়া বেগম বলেন, করোনার সময় আমাদের কোন কাজ নেই। আমি একটি বাড়িতে কাজ করতাম তারাও এখন কাজে নিচ্ছে না।

তাছাড়া বয়সও হয়েছে অনেক। এই টাকা দিয়ে নাতি নাতনিদের নিয়ে চিনি সেমাই কিনে খাওয়াব। ৬ নং ভবারবেড় ওয়ার্ডের নবীছন টাকা পেয়ে হাসি মুখে বলেন ঈদ এসেছে কোন কাজ নেই। খুব কস্টে দিনযাপন করছি। যা পেয়েছি তাতে কিছু উপকার হলো।

৭ নং ওয়ার্ড রমজান আলী(বুলেট) মেম্বার বলেন, প্রতিটি ওয়ার্ডে যাচাই বাছাই করে যারা খুবই অসহায় তাদের মাঝে প্রধান মন্ত্রীর দেওয়া নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ১২ নং সালন্দর ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান মাহাবুব আলম মুকুল। সালন্দর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মাজেদুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক দায়মুল ইসলাম (জনি) টেক অফিসার মোঃ নজরুল ইসলাম, সকল ইউপি সদস্য এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্যা,ইউপি মোঃ আনাোয়ারুল ইসলাম সচিপ সহ নেতা কর্মিরা।

মহাদেবপুরে আ’লীগের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

0

মামুন পারভেজ হিরা,নওগাঁ ঃ নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (৮ মে) সন্ধ্যায় বকাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে আয়োজিত ইফতার মাহফিলে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশি যুবলীগ নেতা সাঈদ হাসান তরফদার শাকিল প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম এতে সভাপতিত্ব করেন। অন্যদের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য বকাপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও বকাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপত আরেফিন সিদ্দিকী বাবু, সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ১নং ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বাবু, ৩নং ওয়ার্ডের সভাপতি ইসমাইল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক উপছের আলী, ৪নং ওয়ার্ডের সভাপতি এসএম হান্নান, সাধারণ সম্পাদক আখেড় আলী, ৫নং ওয়ার্ডের সভাপতি আব্দুস সালাম, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিল, ৬নং ওয়ার্ডের সভাপতি হাসান আলী, সাধারণ সম্পাদক মো: মাসুম, ৭নং ওয়ার্ডের সভাপতি আব্দুল জব্বার, সাধারণ সম্পাদক মো: বাদশা, ৮নং ওয়ার্ডের সভাপতি শ্রী অজিত কুমার, ৯নং ওয়ার্ডের সভাপতি আজহার আলী, সাধারণ সম্পাদক শ্রী অমিয় কুমার, ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শ্রী টগর কুমার দাস, ইউনিয়ন কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজ আলম, শ্রমিক লীগের নেতা মো: মিঠু, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নাহিদ হোসেন, নওগাঁ জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট কুদরত-ই-খোদা সোহাগ, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহবুব মোরশেদ, সাবেক প্রচার সম্পাদক জাহিদ হাসান, ছাত্রলীগ নেতা আসাদুজ্জামান রতন, সাহেব আলীসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এতে অংশ নেন।

ইফতারের পূর্বে দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি ও মঙ্গল কামনা করে বিশ্বব্যাপী মরণব্যাধি করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করা হয়।

এদিন যুবলীগ নেতা সাঈদ হাসান তরফদার শাকিল সদর ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের নেতাকর্মীর মধ্যে ঈদ উপহার বিতরণ করেন।#

 

নওগাঁয় অসহায় কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিলো শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

0

মামুন পারভেজ হিরা,নওগাঁ ঃ নওগাঁর মহাদেবপুরে রাইগাঁ ডিগ্রী কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এক অসহায় কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়ে দৃষ্টান্তর স্থাপন করেছে। করোনা ভাইরাস মহামারিতে যখন কৃষক বাবুল হোসেন শ্রমিকের অভাবে জমির ধান কাটতে পারছিলেন না তখন খবর পেয়ে রাইগাঁ ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আরিফুর রহমানের নেতৃত্বে ২৫-৩০জন শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্যবৃন্দ ওই কৃষকের ৩বিঘা জমির ধান কেটে মাড়াই করে ঘরে তুলে দিয়েছেন।

রবিবার দুপুরে মহাদেবপুর উপজেলার সহরাই পশ্চিম পাড়া মাঠে গিয়ে দেখা যায় যে কলেজের অধ্যক্ষ আরিফুর রহমানের নেতৃত্বে কাস্তে হাতে নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা জমিতে নেমে ধান কাটছেন। পরে ওই ধানগুলো কৃষক বাবুলের বাড়িতে এনে মাড়াই করে দিয়েছেন। রবিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত তারা ওই কৃষকের জমির সকল ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছেন। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন মহাদেবপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হাবিবুর রহমান, একাডেমিক সুপারভাইজার ফরিদুল ইসলাম প্রমুখ। শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন স্থানীয় সচেতন মহল।

অসহায় কৃষক বাবুল হোসেন বলেন, আমি গরীব এবং বয়স্ক মানুষ। করোনা ভাইরাসের কারণে ধান কাটার শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না। আবার পাওয়া গেলেও তাদের মজুরী অনেক বেশি। তাই আমার পক্ষে এতো বেশি মজুরী দিয়ে শ্রমিক নিয়ে ধান কাটা সম্ভব নয়। আমার এমন অবস্থার কথা জানতে পেরে রাইগাঁ কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এসে জমির ধান কেটে আমার ঘরে তুলে দিয়েছে। এতে আমি অনেক খুশি। আমি তাদের জন্য মন থেকে দোয়া করছি।

অধ্যক্ষ আরিফুর রহমান জানান শুধু কৃষকের ধান কাটাই নয় এমন জনহিতকর কাজ তিনি অনেক আগে থেকেই করে আসছেন। তিনি নিজ উদ্যোগে মুজিব শতবর্ষে বিভিন্ন সামাজিক ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান এবং রাস্তার দুপাশ দিয়ে প্রায় সাড়ে এগার হাজার ফলদ ও বনজ গাছের চারা রোপন করেছেন।

এছাড়া এলাকায় সবুজায়নের জন্য বিভিন্ন জাতীয় ও গুরুত্বপূর্ন দিবসেও দীর্ঘদিন ধরেই তিনি গাছের চারা রোপন করে আসছেন। এই সব কাজের পাশাপাশি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক আমার কলেজের সকল শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যদের নিয়ে মাঠে গিয়ে অসহায় কৃষকের ধান কাটার কার্যক্রম শুরু করেছি। যতদিন মাঠে ধান আছে ততদিন আমাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। যেখানে খবর পাবো সেখানে গিয়ে আমরা স্বেচ্ছায় ওই কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়ে আসবো।

ব্যক্তিগত  ভাবে ১১হাজার মানুষকে ঈদ উপহার দেয়া হবে – প্রতিমন্ত্রী পলক

0

আনোয়ার হোসেন আলীরাজ, সিংড়া,(নাটোর) থেকে:
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহীতার সাথে আমরা কাজ করছি। বিশ্বের বৃহৎ দেশ গুলোতে অর্থনীতিতে স্থবিরততা নেমে এসেছে। ইতোমধ্যে ৩২ লাখ মানুষ মারা গেছেন। সেই মুহুর্তে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী স্বল্প আয়ের মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

সিংড়ার ৩১ হাজার পরিবার ভিজিএফ সাহায্য পাবে। ব্যক্তিগত ভাবে পৌর এলাকার ৭ হাজার ও ইউনিয়নের ৪ হাজার মানুষকে ঈদ উপহার দেয়া হবে। প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, গরীবের হক কেউ নষ্ট করবেন না। কোনো অনিয়ম মেনে নেয়া হবে না। কোনে দুর্নীতি করলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা আমরা সততা ও স্বচ্ছতার সাথে পৌছে দিচ্ছি। যাতে কারো কার্ডের টাকা কেউ উত্তোলন না করতে পারে। বিগত দিনে সিংড়ার প্রায় ৭০হাজার মানুষকে মানবিক সহায়তা পৌছে দিয়েছি। ১ লক্ষ মাস্ক বিতরন করা হয়েছে, মসজিদে মসজিদে সাবান সরবরাহ করা হয়েছে।

কৃষকদের পাশে ছিলো ছাত্রলীগ-যুবলীগ। তারা সার্বক্ষণিক পাশে থেকে কাজ করছে। তিনি আরো বলেন, সজিব ওয়াজেদ জয় ২০১৮সালের ১৩ এপ্রিল জাতীয় তথ্য সেবা চালু করেন। কোটি ৮১হাজার মানুষ তথ্য সেবা পেয়েছেন।

আজ বিশ্ব মা দিবস, জাতীর শ্রেষ্ঠ শিক্ষক মা। একজন মা পারে সন্তানকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে পারেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার নারীদের সম্মান বাড়িয়ে দিয়েছেন। সকল সনদে মায়ের নাম যুক্ত করা হয়েছে।

সিংড়া পৌরসভার মেয়র মো: জান্নাতুল ফেরদৌসের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম সামিরুল ইসলাম,উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. ওহিদুর রহমান, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাও. রহুল আমিন, পিআইও আল আমিন সরকার, পৌর সচিব আব্দুল মতিন উপস্থিত ছিলেন।

পরে প্রতিমন্ত্রী উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের ৬ হাজার পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা হিসেবে ৫০০ টাকা বিতরন কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

গুরুদাসপুরে ধান-চাল ক্রয়ে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ

0

আলী আক্কাছ,গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি.
নাটোরের গুরুদাসপুরে ধান-চাল সংগ্রহ অভিযান উদ্বোধনের পরের দিনই অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ এনে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেছেন উপজেলা অটো মেজর এন্ড হাসকিং মিল মালিক সমিতির মিলার ও সাধারণ কৃষকরা।

নীতিমালা লঙ্ঘন করে অবৈধ সিন্ডিকেটের মাধ্যমে উপজেলা খাদ্য গুদামে ধান ও চাল সংগ্রহের বিরুদ্ধে রবিবার বেলা ১১টার দিকে উপজেলা পরিষদ চত্বরে ওই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে ভুক্তভোগী কৃষক ও মিলারদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মো. শাহনেওয়াজ আলী, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. জাহিদুল ইসলাম, মিল মালিক সমিতির সভাপতি মো. ইসমাইল হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, মধ্যস্বত্বভোগী দালাল চক্র দীর্ঘকাল ধরে স্থানীয় সাংসদের মদদে ধান-চাল সংগ্রহ অভিযানে অনিয়ম-দুর্নীতির রাজত্ব কায়েম করে আসছে। স্থানীয় সাংসদ আব্দুল কুদ্দুস ১১৮ জন মিল মালিককে বাদ দিয়ে মাত্র দুই মিল মালিক সামছুল হক শেখ ও আব্দুর রহিম মোল্লার মাধ্যমে খাদ্য গুদামে নি¤œমানের চাল সরবরাহ দিয়ে লক্ষলক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন।

অন্তত ২০ বছর ধরে তারা এভাবে সিন্ডিকেট করে আসছেন। অপরদিকে শ্রমিক-কর্মচারীদের নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন প্রকৃত মিলাররা।

ভুক্তভোগী মিলার বছের আলী ও বয়েজ আলী বলেন, আমাদের রক্ত চুষে খাচ্ছে এই সিন্ডিকেট। প্রতি মৌসুমে তারা খাদ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীর সাথে যোগসাজস করে অন্তত ৫০ লাখ টাকা হাতিয়ে নেন। বিগত বছরগুলোতে মিলারদের কাছ থেকে প্রতি বস্তা চাউলে ৬০ টাকা করে আর্থিক সুবিধা আদায় করে ওই সিন্ডিকেট।

এসব অভিযোগ অস্বীকার করে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক উম্মে কুলসুম বলেন, সরকারি নীতিমালা অনুসরণ করেই ধান-চাল সংগ্রহ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।

খাদ্য পরিদর্শক বিদ্যুৎ কুমার দাশ বলেন, এবারে প্রতি কেজি ধান ২৭ টাকা হারে ৪৮১ মেট্রিকটন ও ৪০ টাকা কেজি হারে ৩ হাজার ৩৮৪ মেট্রিকটন চাল ক্রয় করা হবে।

এ ব্যাপারে সাংসদ আব্দুল কুদ্দুস মুঠোফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে ধান-চাল সংগ্রহ অভিযানের সভাপতি ও ইউএনও মো. তমাল হোসেন বলেন, মিলারদের অভিযোগের বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।#

মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে খুলনা প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

0

:বি এম রাকিব হাসান্,খুলনা : মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে সাতক্ষীরা ডিবি পুলিশ কর্তৃক আটক আটক মাসুদ পারভেজ এর মাতা মাহমুদা বেগম এর পক্ষ হতে খুলনা প্রেস ক্লাবের হুমায়ুন কবীর বালু মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মাহমুদা বেগম এর পক্ষে মাসুদ পারভেজ এর ভাগ্নে রিক্তা পারভিন।

লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, আমার পুত্র মোঃ মাসুদ পারভেজ (২০) পিং নজরুল সরদার সাং কলাবারীয়া থানা- নড়াগাতী, জেলা- নড়াইল।

আমার পুত্র খুলনা হোমিও প্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ছাত্র এবং নড়াইল জেলা ছাত্রলীগের উপ-গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি পাঠাগার, ছাত্র ফেডারেশন বাংলাদেশে কেন্দ্রীয় কমিটির উপ-সাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক।

গত ইং ৩০/০৪/২১ আমার দেবরের ছেলে ডাঃ বাদশা মিয়া পিতাঃ নোর ইসলাম ও তার বন্ধু জাহানুর হোসেন সাগর কে নিয়ে আমার বাড়ীতে বেড়াতে আসে। তারপর আমার বাড়ীর থেকে আমার বড় ননদ এর বাড়ী বেড়াতে যায়।

যাওয়ার পর আমার ননদের বাড়ীতে ইফতারী করে ইফতার করার পর নামাজ পরার পরে বিশ্রাম করে পথিমধ্যে খবর আসে আমার ছোট ননদ ঝর্ণা বেগম তার স্বা্মী আবু তালেব মল্লিক এর বাড়ী ঘেরাও করে ডাঃ বাদশা মিয়া কে ডিবি পুলিশ পরিচয়ের খোজা খুজি করছে সংখ্যায় আনুমানিক ২০/৩০ জন হবে।

সংবাদ পেয়ে ডাঃ বাদশা মিয়া, জাহানুর হোসেন, সাগর ও আমার ছেলে মাসুদ পারভে্‌ শওকত সরদার, এর বাড়ী থেকে পালিয়ে কলাবাড়ীয়া ইউনিয়নের নড়াগাতী থানার পার খালী গ্রামের হাই স্কুলের সামনে পৌছালে ৩জনকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। আনুমানিক রাত্র ২ঃ৩০ মিনিটের সময়।

আমি অনেক থানা ও জেলখানা খোজা খুজি করে বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পারলাম আমার ছেলেকে সাতক্ষীরা ডিবি পুলিশ সাতক্ষীরা ঝাওডাঙ্গা নামক স্থান হইতে গ্রেপ্তার দেখাইয়া মিথ্যা মামলার নাটক সাজাইয়া সাতক্ষীরা জেলা কারাগারে রাখিয়াছে।

এখানে উলেখ্য যে, মাসুদ পারভেজের নামে পূর্বে কোন মামলা নাই।

আমার পুত্রকে নড়াগাতী থানা থেকে গ্রেপ্তার করিয়াছে কিনা তার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বার ০১৭৩৪৫২৭৩৯৫ তার অবস্থান পর্যা্লোচনা করিলে সঠিক জানা যাবে ।

আমি মিথ্যা মমলা পত্যাহার সহ তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য মাননীয় প্রধান মন্ত্রী স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী, আইন মন্ত্রী, আইজিপিসহ সকল ইলেকট্রিক, প্রিন্ট মিডিয়া ও মনবাধিকারসহ সংশ্লিষ্ট সকলের নিকট জোর দাবী জানাচ্ছি।

তানোরে প্রধানমন্ত্রীর অনুদান নিয়ে মেয়রের প্রচারণা ?

0

তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি
রাজশাহীর তানোরের মুন্ডুমালা পৌরসভায় ঈদ উপলক্ষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে বিশেষ ভিজিএফ (ভালনারেবল গ্রুপ ফিডিং) কর্মসুচির আওতায় ৩ হাজার ৮১ জন উপকারভোগীর বিপরীতে মাথা পিছু ৪৫০ টাকা করে মোট ১৩ লাখ ৮৬ হাজার ৪৫০ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

এদিকে সমাজের অসহায় হতদরিদ্র মানুষের মাঝে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঈদ উপহার নিয়ে মেয়র সাইদুর রহমান ব্যক্তিগত প্রচারণা করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

এ খবর ছড়িয়ে পড়লে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের মধ্যে চরম অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়েছে, উঠেছে সমালোচনার ঝড়, আবার অনেকে মেয়র এমন দাম্ভিকতার জন্য তার দৃস্টান্তমুলক শাস্তির দাবিও করেছেন বলে একাধিক সুত্র নিশ্চিত করেছে। জানা গেছে, ৯মে রোববার মুন্ডুমালা পৌরসভায় ভিজিএফ উপকারভোগীদের মাঝ অনুদানের অর্থ বিতরন করা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কাউন্সিলর বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার বিতরণে মেয়র সাহেব পৌরসভার টাকায় খামের উপর নিজের নাম লিখে নিজের প্রচারণা করছেন, যেটা তিনি নৈতিকভাবে করতে পারেন না। তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বা স্থানীয় সাংসদের পক্ষ থেকে বিতরন এই কথাটি লিখা উচিৎ ছিল, তা না করে নিজের ছাপিয়ে তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও স্থানীয় সাংসদকে অবজ্ঞা করেছেন বলেই সাধারন মানুষ মনে করছে।

এবিষয়ে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেস্টা করা হলেও মেয়র সাইদুর রহমান কল গ্রহণ না করায় তার কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি। এবিষয়ে সরাসরি সচিব আবুল হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মেয়র মহোদয় সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী, তিনি ইচ্ছে করলে এমন কথা লিখতেই পারেন, এটা নিয়ে প্রশ্ন তোলার কোনো সুযোগ নাই।#

চৌগাছায় খাদ্য গুদামে ধান-চাল সংগ্রহের উদ্বোধন করলেন এমপি নাসির উদ্দিন

0

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি॥ যশোরের চৌগাছায় রবিবার সকালে খাদ্য গুদামে ধান-চাল সংগ্রহের উদ্বোধন করা হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যশোর-২ চৌগাছা-ঝিকরগাছা আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অবসরপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডাঃ মোঃ নাসির উদ্দিন।

এ সময় তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ উন্নয়নের পথে এগিয়ে চলেছে। ভয়াবহ করোনাকালীন সময়েও খাদ্য উৎপাদনে আমরা লক্ষমাত্রা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি। তিনি বলেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও সরকারি সকল নির্দেশনা মেনেই আমাদের উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যহত আছে। তিনি এ সময় চলমান উন্নয়ন ও করোনা মোকাবেলার জন্য সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ড. মোস্তানিছুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ এনামুল হক।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আশরাফুজ্জামান লিটন, উপজেলা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পলাশ আহমেদ, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিয়া, যুগ্ম সম্পাদক এস এম সাইফুর রহমান বাবুল, সদর ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, স্বরূপদাহ ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান নূরুল কদর, আওয়ামী লীগ নেতা শাহাবুদ্দিন চুনু বড় মিয়া, প্যানেল মেয়র কাউন্সিলর আনিচুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক শরিফুল ইসলাম, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল কাদের, প্রেসক্লাবের সভাপতি আলমগীর মতিন চৌধুরী, যুবলীগ নেতা মাইনুল ইসলাম প্রমুখ।

এবারের ইরি-বোরে মৌসুমে উপজেলা খাদ্য গুদাম ২৭ টাকা কেজি দরে ২ হাজার ৯’শ ৮২ মেট্রিকটন ধান এবং ৪০ টাকা কেজি দরে ১ হাজার ২’শ ৬৫ মেট্রিকটন চাউল সংগ্রহ করবে।

ধান-চাল সংগ্রহ উদ্বোধন শেষে প্রধান অতিথি সংসদ ডাঃ মোঃ নাসির উদ্দিন উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালের অবকাঠামো বর্ধিত করার লক্ষ্যে প্রায় ৪ একর অধিগ্রহন করা জমির পরিমাপ পরিদর্শন করেন এবং সীমানা নির্ধারণ পর্যবেক্ষণ করেন। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ লুৎফুন্নাহারসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

 

পুরুষ ভিক্ষুকের ছুরিকাঘাতে নারী ভিক্ষুকের মৃত্যু

0

ডেস্ক নিউজ: পাবনায় পুরুষ ভিক্ষুকের ছুরিকাঘাতে আল্লাদী (৪৬) নামের এক নারী ভিক্ষুকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শহরের দিলালপুর পানির ট্যাংকির নিচে এ ঘটনা ঘটে।

পূর্ব বিরোধের জের ধরে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে দাবি করছেন পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম।

প্রত্যক্ষদর্শী ভিক্ষুক আসমা খাতুন জানান, প্রতিদিনের মতো কয়েকজন ভিক্ষুক বড় বাজার এলাকাসহ আশপাশ মহল্লায় ভিক্ষা ও জাকাতের কাপড় সংগ্রহের জন্য দিলালপুর মহল্লার বড়বাজার-সংলগ্ন পানির ট্যাংকির নিচে অবস্থান নেয়। এ সময় ভিক্ষুক শিল্পীর মা আল্লাদীর সাথে আরেক নারী ভিক্ষুকের সাথে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়।

এরই এক পর্যায়ে দুজনের মধ্যে চুল ধরে টানাটানি শুরু হয়। এ সময় পাশে থাকা লুঙ্গি ও পাঞ্জাবি পরিহৃত এক মধ্যবয়সী পুরুষ এসে নারী ভিক্ষুক আল্লাদীকে ধারালো ছুরি দিয়ে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। এ সময় অন্য ভিক্ষুকগুলো ধাওয়া দিলে ঘাতক ভিক্ষুক পালিয়ে যায়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম বলেন, ঘাতকের বাড়ি সুজানগর উপজেলায় বলে জেনেছেন। স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়। আল্লাদী শহরের অনন্ত বাজার-সংলগ্ন দ্বীপচরে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। ঘটনাস্থলের একটি বাড়ির সিসি ক্যামেরা ফুটেজ দেখে ঘাতককে চিহ্নিত করা হচ্ছে।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসিম আহমেদ জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

সর্বশেষ